করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে পাতে রাখুন এসব খাবার

করোনাভাইরাস থেকে বাঁচতে পাতে রাখুন এসব খাবার

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৪৯ ৬ মার্চ ২০২০   আপডেট: ১৬:৫৯ ৬ মার্চ ২০২০

ছবি: প্রতীকী

ছবি: প্রতীকী

চীন পেরিয়ে করোনার বিস্তার এখন বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। জানা গেছে, করোনার থাবা পড়তে পারে আরো ২৫টি দেশে। বাংলাদেশের নামটিও রয়েছে করোনাভাইরাসে ঝুঁকিপ্রবণ দেশের তালিকায়। 

তাই করোনা মোকাবিলায় শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানোর বিকল্প নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে, খাদ্যাভ্যাসে সামান্য বদল আনলেই ভাইরাসের কবল থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এবার তবে জেনে নিন কোন খাবারগুলো রয়েছে এ তালিকায়-

আদা

অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি উপাদান সমৃদ্ধ এই মশলাটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এজন্য খাদ্য তালিকায় আদা রাখতে ভুলবেন না যেন! রান্নায় বেশি করে আদা ব্যবহার করুন। পারলে দিনে দু-একবার আদা চাও খেতে পারেন।

রসুন

শরীরের টক্সিন (ক্ষতিকর পদার্থ) বের করতে রসুনের বিকল্প নেই। এজন্য সুস্থ থাকতে রসুন খেতে ভুলবেন না। তবে রান্না করা রসুনে সেই গুণ মেলে না। তাই পানিতে ফুটিয়ে কিংবা কাঁচা রসুন খান।

হলুদ

প্রাচীনকাল থেকেই বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় হলুদ ব্যবহার করা হয়। শুধু মশলা হিসেবেই নয় বরং শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতেও কাজ করে হলুদ। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য হলুদের কোনো বিকল্প নেই। হলুদের সঙ্গে গোলমরিচ, নারকেল দুধ এবং ঘি মিশিয়ে খান।

টকদই

দিনে অন্তত খাওয়া-দাওয়ার পর দই খান। টকদইয়ে রয়েছে প্রোটিন, ক্যালসিয়াম, রাইবোফ্লোভিন, ভিটামিন বি ৬ এবং ভিটামিন বি ১২। প্রতিদিন দই খেলে ত্বকের উজ্জ্বলতাও বাড়বে সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে।

প্রোটিন রাখুন

শরীরের বিভিন্ন কোষকে ধ্বংস করতে খাদ্য তালিকায় প্রোটিন জাতীয় খাবার অবশ্যই রাখুন। সয়াবিন, মসুর ডাল, ব্রোকোলি, আলু, পালং শাক, বাদাম ও দুধে পর্যাপ্ত প্রোটিন রয়েছে। এছাড়াও বাঁধাকপি, পেঁয়াজ কলি, টমেটো, পেঁয়াজ, আদা এবং রসুন একসঙ্গে সেদ্ধ করে খেতে পারেন। 

বিভিন্ন শাক
 
প্রতিদিনের খাবারে শাক রাখতে ভুলবেন না যেন! ভাজি বা তরকারি এমনকি শুধু লবণ দিয়ে সিদ্ধ করেও খেতে পারেন। শাকে থাকা বিভিন্ন পুষ্টিগুণ আপনার রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াবে।

আমন্ড বা কাঠবাদাম

ভিটামিন ই, এ, বি ১, বি ৬, ম্যাগনেসিয়াম, ফাইবার সমৃদ্ধ আমন্ড রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এছাড়াও এতে রয়েছে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। এজন্য প্রতিদিনের খাদ্য তালিকায় ৮ থেকে ১০টি আমন্ড রাখতে ভুলবেন না।

গ্রিন টি

প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টি অক্সিডেন্ট রয়েছে গ্রিন টিতে। বিভিন্ন রোগ থেকে দূরে থাকতে নিয়মিত গ্রিন টি পান করুন। প্রতিদিন অন্তত ২ থেকে ৩ কাপ করে চা পান করুন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস