করোনাকালেও সড়কে থেমে নেই চাঁদাবাজি

করোনাকালেও সড়কে থেমে নেই চাঁদাবাজি

কুমিল্লা প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৫২ ৫ জুলাই ২০২০  

চাঁদার রশিদ (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

চাঁদার রশিদ (ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ)

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যেও কুমিল্লায় থেমে নেই গণপরিবহনে চাঁদাবাজি। সড়কে গাড়ি থামিয়ে এবং স্ট্যান্ডে দাঁড়িয়ে কিছু অসাধু ব্যক্তি রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে বিভিন্ন পরিবহন থেকে অবৈধভাবে চাঁদা তুলছেন।

এরমধ্যে লাকসাম আঞ্চলিক মহাসড়কের জেলার লালমাই উপজেলার বাগমারা বাজার এবং পদুয়ার বাজার বিশ্বরোড এলাকায় এই চাঁদাবাজদের দৌরাত্ম্য বেশি। অটোরিকশা থেকে অবৈধভাবে চাঁদা আদায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী চালকরা। চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে লালমাই ইউএনও বরাবর একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন তারা।

তাদের অভিযোগ, বাগমারা বাজারে কিছু ব্যক্তি রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে কল্যাণের কথা বলে টোকেনের মাধ্যমে চালকদের জিম্মি করে এই চাঁদা আদায় করেন। টাকা না দিলে গাড়ির চাবি নিয়ে বিভিন্নভাবে হয়রানি করেন।

খালেক, মোমিন, মোসলেমসহ একাধিক অটোরিকশা চালক জানান, তাদের একটি সংগঠন রয়েছে। ২০০৪ সাল থেকে অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন (১৫৬৯) নামে ওই সংগঠনের মাধ্যমে কুমিল্লা-লাকসাম সড়কে গাড়ি চালিয়ে আসছেন। তখন পথে পথে কোনো চাঁদা দিতে হয়নি। কিন্তু গত মে মাস থেকে স্থানীয় কিছু রাজনৈতিক নেতা বাগমারা বাজারে দাঁড়িয়ে চালকদের থেকে অবৈধভাবে চাঁদা আদায় করে আসছেন। এই চাঁদা আদায় বন্ধের দাবিতে লালমাই ইউএনও একে এম ইয়াসির আরাফাতের কাছে একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। 

এ ব্যাপারে অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের (১৫৬৭) সাধারণ সম্পাদক মো. আলম জানান, পদুয়ার বাজার বিশ্ব এবং বাগমারা বাজার এলাকায় কিছু লোক রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে চালকদের থেকে অবৈধ চাঁদা আদায় করছেন এমন অভিযোগ পেয়েছি। সড়কে দাঁড়িয়ে চাঁদা আদায়ের বিষয়ে আমাদের সংগঠনে কোনো নিয়ম নেই। বাগমারা বাজারে যেসব মানুষ চাঁদা আদায় করছেন তা নিয়মনীতির বাইরে রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে করছেন। আমরা এই চাঁদাবাজদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের ব্যবস্থা চাই।

বাগমারা বাজার এলাকার স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা মো. শফিক ক্যাশিয়ার জানান, আমরা অটোরিকশা শ্রমিকদের থেকে ১০ টাকা হারে কল্যাণের টাকা নিচ্ছি। এর বাইরে কোনো টাকা নেয়া হচ্ছে না। স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন আমাদের কার্যক্রম তদন্ত করে দেখেছেন।  

ইউএনও একে এম ইয়াসির আরাফাত জানান, চাঁদাবাজির বিষয়ে অটোরিকশার একটি সংগঠন থেকে লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে চিঠি দেয়া হয়েছে। তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা কী পেয়েছে খোঁজ নেয়া হবে। 

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএম