করোনাকালেও পাশে নেই আশুগঞ্জ জাতীয় পার্টি

করোনাকালেও পাশে নেই আশুগঞ্জ জাতীয় পার্টি

আশুগঞ্জ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৫:৩৩ ১ জুলাই ২০২০   আপডেট: ১৬:২৬ ১ জুলাই ২০২০

সংগৃহীত

সংগৃহীত

খাতায় কিংবা সভাপতি-সম্পাদকের মুখেই আছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টি। দেশব্যাপী করোনার এ মহামারিতে খেটে খাওয়া মানুষের পাশে সরকার দলীয় নেতাকর্মীরা থাকলেও নেই জাপা। এমনকি নিজের দলের কর্মীদেরও খোঁজখবর রাখছেন না এ দলের নেতারা।

দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের শুরুতে জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান জিএম কাদের বলেন, করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকারের সব উদ্যোগে জাতীয় পার্টি সক্রিয়ভাবে সহায়তা করবে। কিন্তু আশুগঞ্জে এর উল্টো চিত্র দেখা গেছে। সক্রিয়ভাবে দূরের কথা, কর্মহীনদের কোনো খোঁজও নিচ্ছে না দলটি।

করোনার কারণে তিন মাস ধরে কর্মহীন হয়ে বাড়িতে দিন পার করেছেন নাছির মিয়া। তিনি জানান, সরকারের পক্ষ থেকে ত্রাণ সহায়তা পেলেও এ এলাকাতে জাতীয় পার্টির নেতারা কিছুই দেননি।

জাতীয় পার্টির স্থানীয় নেতাকর্মীরা জানান, আশুগঞ্জে এক সময় জাতীয় পার্টির কার্যক্রম ছিল দেখার মতো। কিন্তু গেল জাতীয় নির্বাচনের পর থেকে আশুগঞ্জে তেমন কার্যক্রম না থাকায় নেতাকর্মীদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করেছে। এছাড়া দীর্ঘদিন একই কমিটি থাকায় অনেক নেতাকর্মীদের মাঝে চাপা ক্ষোভ রয়েছে।

আশুগঞ্জ উপজেলা নাগরিক সমাজের সাধারণ সম্পাদক ইসহাক সুমন বলেন, দেশের এ ক্রান্তিলগ্নে অসহায় কিংবা মধ্যবিত্তদের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দিচ্ছে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। কিন্তু জাতীয় পার্টি এর কিছুই করেনি। এতে ক্ষিপ্ত জনসাধারণ। কেননা ভোটের আগে জাপার নেতাদের দেখা মিললেও বিপদে পাওয়া যায় না। ফলে আশুগঞ্জের জনগণ জাতীয় পার্টিকে ভুলতে বসেছে।

আশুগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আবুল হাসেম বলেন, করোনাকালে আশুগঞ্জ জাতীয় পার্টির তেমন কোনো কর্মকাণ্ড চোখে পড়েনি। যে দল বিপদে অসহায়-কর্মহীনদের পাশে থাকে না সেই দলকে মানুষ কীভাবে মনে রাখবে? এক সময় জাতীয় পার্টির একটা নাম ছিল, কিন্তু বর্তমানে তা আর নেই।

আশুগঞ্জ উপজেলা জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক ম্যারাজ শিকদার বলেন, আমাদের সাধ্য অনুযায়ী আশুগঞ্জের মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। তবে দলীয়ভাবে তেমন বরাদ্দ না থাকায় ভালো কিছু করতে পারিনি।

ডেইলি বাংলাদেশ/এস/এসআর