কম খরচে মিলনছড়ি

কম খরচে মিলনছড়ি

ভ্রমণ প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৪:০৭ ১ জুন ২০১৯  

মিলনছড়ির অপরূপ রূপ

মিলনছড়ির অপরূপ রূপ

প্রাকৃতিক সৌর্ন্দযের অবারিত সমারোহ এবং মেঘের রাজ্য ছুঁয়ে দেখার ইচ্ছে যদি থাকে, তাহলে ঘুরে আসতে পারেন মিলনছড়ি। বান্দরবান শহর থেকে মাত্র ৩ কিলোমিটার দক্ষিণ পূর্বে শৈলপ্রপাত বা চিম্বুক যাওয়ার পথে পড়ে পর্যটন কেন্দ্রটি। পাহাড়ের বেশ উপরে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে পূর্ব প্রান্তে অবারিত সবুজের খেলা এবং সবুজ প্রকৃতির বুক ছিঁড়ে সর্পিল গতিতে বয়ে যাওয়া অপূর্ব সাঙ্গু নদীর দেখা মিলবে।

মিলনছড়ি এলাকায় পাহাড়ের বুকে অবস্থিত হিলসাইট রিসোর্ট। অত্যন্ত দৃষ্টিনন্দন এই রিসোর্টটি দেশের প্রথম রিসোর্ট। উঁচু-নিচু অসমান বিশাল একটা চত্বর জুড়ে অবস্থান রিসোর্টটির। এটি এমনভাবে নির্মাণ করা হয়েছে যা দেখলেই আপনি বুঝতে পারবেন কটেজগুলো প্রকৃতির সঙ্গে কতটা একাত্ম। এখানে বাঁশ ও কাঠের সুনিপুণ ব্যবহার দেখতে পাবেন যা আপনাকে কিছু সময়ের জন্য হলেও কংক্রিটের শহরকে ভুলে থাকতে সাহায্য করবে।

হিলসাইট রিসোর্ট

পুরো জায়গাটুকু ঘন সবুজ গাছ দিয়ে মোড়া। পুরোটা জুড়েই রয়েছে সবুজের ছোঁয়া। চারপাশটা নিবিড় জঙ্গল তাতে রয়েছে নানান গাছের সমাহার। আরো আছে বিশাল সব বাঁশ ঝাড়, থোকায় থোকায় ফুটে থাকা হরেক রঙের ফুলের শোভা ও মোহনীয় সুবাস। অসংখ্য রেইনট্রি পুরো রিসোর্টটিকে করেছে এক নিবিড় প্রশান্তির নীড়। এই রিসোর্ট থেকে দেখতে পারবেন পূর্ব প্রান্তে অবারিত সবুজের খেলা।

নির্দেশনা

বান্দরবান শহর থেকে টেক্সি, চাঁদের গাড়ি কিংবা প্রাইভেট কার বা জীপ ভাড়া করে মিলনছড়ি যাওয়া যায়। শহর থেকে জীপ গাড়িতে ৭০০-৮০০ টাকা এবং চাঁদের গাড়িতে ৫০০-৬০০ টাকা লাগবে। যদিও মিলনছড়িকে উদ্দেশ্য করে আলাদা ভাবে এখানে যাবার প্রয়োজন নেই। কারন আপনি যখন শৈলপ্রপাত বা চিম্বুক বা নীলগিরি যাবেন, পথেই মিলনছড়ি পড়বে। কাজেই ভাড়া করা গাড়ি রাস্তার পাশে থামিয়েই বেড়াতে পারেন।

মিলনছড়ি এলাকায় পাহাড়ের বুকে গড়ে ওঠা হিলসাইড রিসোর্ট বান্দরবানের অন্যতম দৃষ্টিনন্দন রিসোর্ট হিসেবে পরিচিত। যেখানে বসে পাহাড়, নদী আর মেঘের দৃশ্য উপভোগ করতে পারবেন সহজেই। ভাড়া রুম প্রতি ১৫০০-৪০০০ টাকার মধ্যেই।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনকে