Alexa কক্সবাজারে ইয়াবা ও ত্রাণের চাউল উদ্ধার

কক্সবাজারে ইয়াবা ও ত্রাণের চাউল উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:৩৬ ১৪ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৭:৩৭ ১৪ নভেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

কক্সবাজারে পৃথক অভিযান চালিয়ে বিপুল সংখ্যক মিয়ানমার থেকে আসা ইয়াবা ও রোহিঙ্গাদের জন্য বরাদ্ধ চাউল উদ্ধার করেছে বিজিবি (বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ)। 

বুধবার দিনে ও রাতে এসব অভিযান চালায় কক্সবাজারের ৩৪ বিজিবি।
 
বিজিবির কক্সবাজার ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পরিচালক মো. আনোয়ার হোসেন মজুমদার জানান, গোপন সংবাদে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে রেজুখাল যৌথ চেকপোস্ট এলাকায় ১টি মোটরসাইকেল তল্লাশি করা হয়। হ্নীলা থেকে কক্সবাজারগামী ১৫০ সিসির ওই পালসার মোটরসাইকেলে লুকানো ৪৬ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ সময় ইয়াবা পাচারের অভিযোগে লাদেন খান নামে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়। উদ্ধার করা ইয়াবার মূল্য ১ কোটি ৩৮ লাখ টাকা। মোটরসাইকেলটি আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা ইয়াব ও মোটরসাইকেলসহ আটক আসামিকে রামু থানায় দেয়া হয়েছে।   
                            
অপরদিকে, ৩৪ ব্যাটালিয়নের পালংখালী বিওপি’র (বর্ডার অবজারভেশন পোস্ট) সদস্যরা গোপন সংবাদে জানতে পারে, একটি মিনি ট্রাকে ইয়াবা নিয়ে কক্সবাজার যাচ্ছে মাদক কারবারীরা। এ তথ্যে বান্দরবনের নাইক্ষংছড়ির ঘুমঘুম টিভি টাওয়ার এলাকায় অবস্থান নেয় বিজিব সদস্যরা। রাত সাড়ে ১০টার দিকে সন্দেহভাজন মিনি ট্রাকটি এলে থামার সংকেত দেয়া হয়। চালক ট্রাক না থামিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পিছু নেয় বিজিবি সদস্যরা। বারবার থামার কথা বললেও চালাক থামেনি। একপর্যায়ে সিপাহী মো. ফারুক হোসেন রাইফেল দিয়ে ১০ রাইন্ড গুলি করেন। চাকা পানচার (ফুটো) হয়ে মিনি ট্রাকটি থামতে বাধ্য হয়। তবে চালক গহিন জঙ্গলে পালিয়ে যায়। পরে ওই ট্রাক থেকে ২০ হাজার ইয়াবা ও ৬ হাজার ১০০ কেজি রোহিঙ্গা শিবিরের জন্য বরাদ্ধ চাউল উদ্ধার করা হয়। মিনি ট্রাকটি আটক করা হয়েছে। উদ্ধার করা ইয়াবার মূল্য ৬০ লাখ টাকা ও চউলের মূল্য ৩ লাখ ৫ হাজার টাকা।  

এছাড়া, বুধবার রাত ২টার দিকে রেজুখাল যৌথ চেকপোস্টের সদস্যরা রামুর খুনিয়াপালং এলাকায় অভিযান চালায়। অভিযানে হ্নীলা থেকে কক্সবাজারগামী ১টি ইজিবাইকের সিটের নিচ থেকে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা মূল্যের ৪ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ইয়াবা পাচারের অভিযোগে ইজিবাইকসহ হেলাল উদ্দিন নামে ১জনকে আটক করা হয়। এসব ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এসবি/এমআরকে