Alexa এসেছে শাড়ীতে নতুনত্ব

এসেছে শাড়ীতে নতুনত্ব

প্রকাশিত: ১৮:৩৬ ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭   আপডেট: ১০:৫৫ ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আবহাওয়ায় কখনও রোদ, তো কখনও হঠাৎ বৃষ্টি, সঙ্গে ভ্যাপসা গরম। এমন আবহাওয়ায় এখনকার শাড়িতে কেবল নকশা নয়, গুরুত্ব দেয়া হয়েছে আরামের বিষয়টিতেও।

কেমন ট্রেন্ড চলছে
গত কয়েক বছরের মতো হাফসিল্ক, কটন, অ্যান্ডি, জামদানি, মসলিনের মতো পাতলা ধরনের জমকালো ঐতিহ্যবাহী শাড়ি এখন ট্রেন্ড। জামদানিতে করা হয়েছে ভ্যালু এড অর্থাৎ এর সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে ব্লক, ফুলেল প্রিন্ট, টারসেল, জামদানি প্রিন্ট। সুতি ও রেশমের সুতার সমন্বয়ে তৈরি হয়েছে অনেক শাড়ি।

যার বুননই এনে দিয়েছে গর্জিয়াস লুক। শাড়ির বডির চেয়ে এখন পাড় বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে। বডিতে হালকা, পাড়ে ভারী নকশা। জমিনে জারুল, স্বর্ণালু কিংবা কৃষ্ণচূড়া ফুল ও টাইপোগ্রাফির মোটিফে নকশা করা শাড়ি বেশ চলছে। কিছু শাড়ির পাড়ে একেবারেই ভিন্ন রঙের কাপড়জুড়ে দেয়া হয়েছে। কুঁচির অংশে একরঙা, জমিন, আঁচল ও পাড়ে ভিন্ন রঙের ব্যবহারে শাড়ি হয়ে উঠেছে বর্ণিল।

বাহারি নকশা
জারদৌসি, কারচুপির মাধ্যমে ফিউশনধর্মী কাজ ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে শাড়িতে। গুজরাটি, ইরি কাজও দেখা যাবে শাড়ির নকশায়। ক্রেতাদের নজর কাড়ছে পেটানো কাজের ঐতিহ্যবাহী সব শাড়ি। নকশায় প্রাধান্য পাচ্ছে ট্রেডিশনার মোটিফ।

মসলিন, সিল্ক, টাঙ্গাইল সিল্ক শাড়ির ওপর নকশা পাড়, সুতার কাজ ও হ্যান্ড প্রিন্ট বেশ চলছে। শাড়ির আঁচল ও কুঁচিতে এবার পরিবর্তন এসেছে। শাড়িটা কাতান বা অ্যান্ডি সিল্কের হলে আঁচল বা কুঁচিতে ব্যবহার হচ্ছে মসলিন। সিল্ক, ভেলভেট, অ্যান্ডিসিল্ক, জর্জেট, অর্গেসুতা মসলিনের এমব্রয়ডারি, টাইডাই, স্ক্রিন প্রিন্ট ও চুমকির কাজের এক্সক্লুসিভ শাড়িও পাওয়া যাচ্ছে।

ভারি নকশার ব্লাউজ
হালকা কাজের শাড়ির সঙ্গে ভারি নকশার ব্লাউজ এখন ফ্যাশন ট্রেন্ড। এমব্রয়ডারি, স্টোন, লেইস, গোল্ড প্লেটের ভারি কাজের ব্লাউজ চলবে। গরম হওয়ায় স্লিভলেস হাতা রাখা হয়েছে। ব্লাউজে কোমর পর্যন্ত লম্বা, হল্টার নেক প্যাটার্ন দেখা যাবে। সঙ্গে ব্যাক সাইড নকশা করা ব্লাউজও খুব চলছে।

কোথায় পাবেন কেমন দামে
বিভিন্ন ধরনের সিল্ক শাড়ি ২৫০০-১০০০০ টাকা, মসলিন ৪০০০-১৫০০০ টাকা, লাকমি জর্জেট ৩০০০-৫০০০, টাঙ্গাইল শাড়ি ৮০০-৪০০০ টাকা, রেশমের শাড়ি ১৫০০০-৪০০০০ টাকা, সিলভার বা গোল্ড প্লেটেড অর্নামেন্টের ডেকোরেশনের এক্সক্লুসিভ শাড়ি ৫০ হাজার থেকে দুই লাখ টাকা।

ঐতিহ্যবাহী শাড়ি কিনতে যেতে পারেন মিরপুরের বেনারসি পল্লী। যেতে পারেন রঙ বাংলাদেশ, বিশ্বরঙ, অঞ্জন’স, বাংলার মেলা, গুলশানের নাবিলা, জারাসহ বিভিন্ন ফ্যাশন হাউস, মার্কেট কিংবা যমুনা ফিউচার পার্কসহ বিভিন্ন এক্সক্লুসিভ কালেকশনের শপিং মলেও।

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ