এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে শোবিজের আকাশে শোকের ছায়া

এন্ড্রু কিশোরের মৃত্যুতে শোবিজের আকাশে শোকের ছায়া

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২২:১৭ ৬ জুলাই ২০২০   আপডেট: ২২:২৬ ৬ জুলাই ২০২০

এন্ড্রু কিশোর

এন্ড্রু কিশোর

দেশ বরেণ্য কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোর মারা গেছেন। রাজশাহীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে সোমবার সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। ক্যানসারের সঙ্গে দীর্ঘদিন যুদ্ধ করে হেরে যান এই কিংবদন্তি।

তিনি দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক অসুস্থতায় ভুগে ছিলেন। মৃত্যকালে তিনি এক ছেলে জে এন্ড্রু সপ্তক ও এক মেয়ে মিনিম এন্ড্রু সংজ্ঞাসহ অসংখ্য গুগাহী রেখে গেছেন। তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শোক জানাচ্ছেন সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে শোবিজের নানা অঙ্গনের তারকারাও। অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস লিখেছেন, দাদা, আর দেখা হলো না। প্রণাম...। 

এন্ড্রু কিশোরের জনপ্রিয় গান 'হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস'র একটি ভিডিও শেয়ার করে চলচ্চিত্রকার মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী লিখেছেন, বিদায়, এন্ড্রু দা....। শিল্পী সমিতির সভাপতি জনপ্রিয় খল অভিনেতা মিশা সওদাগর বলেন, আপনার প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা। আপনি যেখানেই থাকেন ভালো থাকুন।

চিত্রনায়ক অমিত হাসান বলেন, আমার অনেক হিট গানের গায়ক এন্ড্রু কিশোর না ফেরার দেশে চলে গেলেন। 'আমি পাথরে ফুল ফোটাবো শুধু ভালোবাসা দিয়ে', 'একদিকে পৃথিবী একদিকে তুমি যদি থাকো' এই দুটি গান সেরা। এই গান আর কে গাইবে। দাদা তোমাকে ভুলবো না।

গুনী এই শিল্পীকে নিয়ে নায়ক ওমর সানি বলেন, রাজা চলে গেলেন। সিংহাসনটা খালিই রয়ে গেলো। আগামী ১০০ বছরে তা আর পূরণ হবে না। দাদার কাছ থেকেই শিখেছি কিভাবে মানুষকে ভালোবাসতে হয়, কীভাবে ছোটদের আদর করতে হয়। আমার অনেক ছবির গানে তিনি প্লেব্লেক করেছেন।

বাপ্পি চৌধুরী বলেন, আপনি শ্রদ্ধার অনেক উচ্চ শিখড়ে ছিলেন, আছেন, থাকবেন। সাইমন সাদিক বলেন, ওপারে ভালো থাকবেন দাদা। নায়ক নিরব হোসেন বলেন, ভালো থাকবেন, শ্রদ্ধা। ইমন বলেন, বিদায় হে কিংবদন্তি...ওপারে ভাল থাকুন।

চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা লিখেছেন, বিনম্র শ্রদ্ধা দাদা। অপু বিশ্বাস শিল্পীর ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি। অভিনেত্রী নিপুণ লিখেছেন, দেশের অন্যতম জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী এন্ড্রু কিশোর দাদা আর নেই।

চিত্রনায়িকা শাহনূর বলেন, আমাদের সবাইকে কাঁদিয়ে এন্ড্রু কিশোর দাদা ওপারে চলে গেলেন। বুকের ব্যথাটা প্রচণ্ড বেড়ে গেল। কষ্টে কিছু লিখতেও পারছি না। ২০০১ সাল থেকে যার সঙ্গে আমি অনেক অনেক প্রোগ্রাম করেছি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে। যে মানুষটা এত আদর করে কথা বলতেন। সেই আমাদের প্রিয় দাদা আর কোনো দিন আদর করে ডাকবে না। কোনো দিনও একসঙ্গে কোন প্রোগ্রামে যেতে পারব না। যার গান আমার সব থেকে প্রিয় ছিল। শুধু আমার কেন সারাদেশের মানুষের প্রিয় শিল্পী ছিলেন সেই এন্ড্রু কিশোর দাদা আর নেই। এভাবে কি চলে যেতে হয় দাদা?

ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেতা সজল বলেন, সুরের জাদুকর, বাংলা গানের সম্রাট বিদায় নিলেন। ওরে ইচ্ছে করে বুকের ভিতর লুকিয়ে রাখি তারে...! ফজলুর রহমান বাবু বলেন, কিছু বলার নাই। ওপারে ভালো থাকবেন দাদা।

অভিনেত্রী শ্রাবন্তী লিখেছেন, আপনার সঙ্গে অনেক স্মৃতি আছে। আপনার শান্তি কামনা করছি দাদা....। ঊর্মিলা লিখেছেন, হায়রে মানুষ, রঙ্গীন ফানুস দম ফুরাইলেই ঠুস!

গণ সংগীতশিল্পী ফকির আলমগীর বলেন, অবশেষে মরণব্যাধি ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন আধুনিক বাংলা গানের কিংবদন্তি শিল্পী এন্ডু কিশোর। তার মৃত্যুতে উপমহাদেশে সঙ্গীত ভুবনে যে শূন্যতার সৃষ্টি হলো যা সহজে পূরণ হবার নয়। আমি তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করি।

গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক বাপ্পা মজুমদার লিখেছেন, বিদায় এন্ড্রু দা... ! বিদায় হে মহারাজ ... । এছাড়া আরো অনেক তারকা ও নানা অঙ্গনের ব্যক্তিরা শোক জানিয়েছেন এন্ড্রু কিশোরকে হারিয়ে।

টানা নয় মাস সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন থেকে গত ১১ জুন বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফিরেছিলেন এন্ড্রু কিশোর। তারপর থেকে তিনি রাজশাহীতে বোন ডা. শিখা বিশ্বাসের ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন ছিলেন। আজ সেখানেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন।

এন্ড্রু কিশোর জনপ্রিয় গানের মধ্যে রয়েছে- জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প, হায়রে মানুষ রঙের ফানুস, ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে, আমার সারা দেহ খেয়ো গো মাটি, আমার বুকের মধ্যে খানে, আমার বাবার মুখে প্রথম যেদিন শুনেছিলাম গান, ভেঙেছে পিঞ্জর মেলেছে ডানা, সবাই তো ভালোবাসা চায় প্রভৃতি। দেশ-বিদেশের সুনামের পাশাপাশি তিনি সম্মানও পেয়েছেন। বাংলা চলচ্চিত্রের গানে অবদানের জন্য তিনি আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেছেন।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ