Alexa এখন থেকে নিয়মিত গান প্রকাশ করবো: মেহরীন

এখন থেকে নিয়মিত গান প্রকাশ করবো: মেহরীন

নাজমুল আহসান ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৪২ ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ছবি: মেহরীন মাহমুদ

ছবি: মেহরীন মাহমুদ

পপ সঙ্গীতশিল্পী মেহরীন মাহমুদ। নব্বই দশক থেকে এখন পর্যন্ত অসংখ্য সঙ্গীত পিপাসু মানুষের হৃদয় ছুঁয়ে দিয়েছেন তিনি। শুধু গানেই নয়, ফ্যাশন সচেতন শিল্পী হিসেবেও তার বেশ খ্যাতি রয়েছে। ছিমছাম ওয়েস্টার্ন পোশাক আর নিজস্ব স্টাইলে গান গেয়ে নজর কেড়েছেন অনেকের। মাঝে একটু বিরতিতে থাকলেও আবারো নিয়মিত হচ্ছেন তিনি। বর্তমান কাজের পরিকল্পনা ও সমসাময়িক বিষয় নিয়ে ডেইলি বাংলাদেশের সঙ্গে কথা বলেছেন এ শিল্পী। সাক্ষাৎকার নিয়েছেন নাজমুল আহসান

‘বন্ধুতা’ অ্যালবামটি সম্পর্কে জানতে চাই?

বাংলা সাহিত্যের সবচেয়ে শক্তিশালী ব্যক্তিত্ব বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের বন্ধুত্ব নিয়ে তৈরি করা হয়েছে অ্যালবাম ‘বন্ধুতা’। কাজী নজরুল ইসলামের বয়স যখন ২২ তখন এক সভায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর তাকে পাশে ডেকে মঞ্চে বসান। উপস্থিত অনেক বর্ষীয়ান ব্যক্তিও বেশ চমকে যান সেদিন। আসলে রবীন্দ্রনাথ নজরুলের প্রতিভা ভালোভাবে টের পেয়েছিলেন। বয়সের অনেক পার্থক্য থাকলেও তাদের মধ্যে যে সাহিত্যিক বন্ধুত্ব ছিল, এটাকে কেন্দ্র করেই এই অ্যালবাম।

অ্যালবামটিতে কয়টি গান রয়েছে? ভক্তরা কিভাবে শুনতে পাবে?

অ্যালবামটি দুই কবির ১০টি গান দিয়ে সাজানো। এ অ্যালবামের সঙ্গীতায়োজন করেছেন কলকাতার সঙ্গীত পরিচালক দূর্বাদল চট্টোপাধ্যায়। গানগুলো আমার নিজস্ব ওয়েবসাইট https://mehreen.net/-এ পাওয়া যাচ্ছে। প্রতি গানের ৩০ সেকেন্ড সবার জন্য উন্মুক্ত। পুরোটা শুনতে, গানপ্রতি ২৫ টাকা খরচ করতে হবে।

হঠাৎ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও কাজী নজরুল ইসলামের গান নিয়ে অ্যালবাম কেন?

ছোটবেলায় আমি ওস্তাদ সুধীন দাশের কাছে গান শিখতাম। তিনি অবলীলায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও কাজী নজরুল ইসলামের গান করতেন। গান শেখানোর সময়ই তিনি বারবার বলতেন, এই দুই শিল্পীর গান অবশ্যই করতে হবে। সেখান থেকেই কবি নজরুল ও রবীন্দ্রনাথ মনে গেঁথে যান। অবশেষে এই দুজনকে নিয়ে একটি অ্যালবাম করতে পেরে নিজের কাছেই তৃপ্তি লাগছে। 

তিন বছর পর ‘যাযাবর’ নামের গান প্রকাশ করলেন? 

ভালো একটি গানের জন্য অপেক্ষা করছিলাম। এতোদিন চেষ্টা করেছি, কিন্তু সব গান সব সময় ভালো লাগে না। যার কারণে নতুন গান প্রকাশে এতো দেরি। মাঝে অনেকের সঙ্গে বসেছি, আলোচনা করেছি অবশেষে ‘যাযাবর’ গানটি ভালো লেগেছে। জাহাঙ্গীর হায়দার দীপনের কথা ও সুরে গানটির সঙ্গীতায়োজন করেছেন ফুয়াদ ইবনে রাব্বি। গত ঈদে জিপি মিউজিকে গানটির অডিও প্রকাশিত হয়, আর সম্প্রতি আমার নিজের ইউটিউব চ্যানেলে গানটির লিরিকাল ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। 

গানটির মাধ্যমে কেমন সাড়া পাচ্ছেন? 

গানের বাইরে সংসার আছে। সেখানে মা-বাবা, বাচ্চা আছে। তাদের কথাও ভাবতে হয়। তারপরও দীর্ঘদিন পর নতুন গান দিয়ে দারুণ ফিডব্যাক পাচ্ছি। ভালো গানের জন্য ভিডিও কোনো ফ্যাক্টর নয়। সেটাই দর্শকদের ফিডব্যাকে বুঝতে পারছি। দর্শকদের কথা ভেবে এখন থেকে নিয়মিত গান প্রকাশ করবো।

নতুন গান ও পরিকল্পনা?

আগেই বললাম এখন থেকে নিয়মিত গান প্রকাশ করবো। দুই মাসের মধ্যে নতুন আরেকটি গান প্রকাশ করবো। এ নিয়ে কাজ করছি। এখন থেকে নতুন গান প্রকাশে আর দীর্ঘ বিরতি হবে না। সম্প্রতি সরকারি প্রকল্প তথ্য আপার থিম সংয়ে কণ্ঠ দিয়েছি। এ ছাড়া ফেরদৌস ওয়াহিদের সঙ্গে ‘ভয়েস অব বাংলাদেশ’ নামের একটি সঙ্গীত সংগঠন নিয়ে আত্মপ্রকাশ করতে যাচ্ছি। শিগগিরই সংগঠনটির বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে।

আপনার ইউটিউব চ্যানেল ও ওয়েব সাইটের কী অবস্থা?

আমার চ্যানেলটি আজ থেকে ১০ বছর আগে খুলেছি। প্রায় চ্যানেলটির সাবস্ক্রাইবার চার হাজার। ইউটিউব শুরুর সময়ই চ্যানেল খুলে নিজের গানগুলো প্রকাশ করতে শুরু করি। এরপর আরো নতুন নতুন প্রযুক্তি আসায় চ্যানেলটির কার্যক্রম স্তিমিত হয়ে পড়ে। খুব শিগগিরই চ্যানেলটিতে দর্শক-শ্রোতাদের সম্পৃক্ততা বাড়ানোর জন্য কাজ করবো। অন্যদিকে, https://mehreen.net/ ওয়েবসাইটটি ঢেলে সাজিয়েছি। আমার গান যারা ভালোবাসে, তারা যাতে সহজে গানগুলো খুঁজে পায় সে জন্যই ওয়েবসাইট করা। যে কেউ এখানে প্রথম গানটি ফ্রি শুনতে পাবেন। এরপর প্রতিটি গান শোনার জন্য টাকা খরচ করতে হবে। একসময় সব গানই ফ্রি করে দেব।

ডেইলি বাংলাদেশ/এনএ