এক বাসের চাপায় আঁধার নেমে এলো ৩ পরিবারে

এক বাসের চাপায় আঁধার নেমে এলো ৩ পরিবারে

সিলেট প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২০:১৯ ১৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ২০:২০ ১৪ আগস্ট ২০২০

দুর্ঘটনা কবলিত বাস- ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

দুর্ঘটনা কবলিত বাস- ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় খালার সঙ্গে নানার বাড়ি যাচ্ছিল এক শিশু। এ সময় বেড়ানোর জন্য বায়না ধরে শিশুটির দুই চাচাতো বোন। পরে তিন শিশুকে নিয়ে অটোরিকশায় রওনা হন খালা। নানার বাড়ি যাচ্ছে বলে শিশুরাও বেশ আনন্দিত। তবে মুহূর্তেই এ শৈশবের আনন্দ পরিণত হলো বিষাদে। একটি বাসের চাপায় খালা-ভাগনিসহ ছয়জন নিহত হন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় হৃদয়বিদারক ঘটনাটি ঘটেছে সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের গজিয়া গ্রিন বার্ড কিন্ডারগার্টেনের সামনে।

নিহতরা হলেন- ওসমানীনগর উপজেলার পশ্চিম ব্রাহ্মণগাঁও গ্রামের কামরুজ্জামান কমরু মিয়ার দুই শিশুকন্যা খাদিজা ও করিমা, কমরু মিয়ার ভাতিজি একই গ্রামের ফজলু মিয়ার শিশুকন্যা আরিফা, তাদের খালা মৌলভীবাজার সদর উপজেলার ভাদ্র গ্রামের আউয়াল মিয়ার স্ত্রী হামিদা এবং ওসমানীনগর উপজেলার মোবারকপুর গ্রামের আলাউদ্দিনের ছেলে অটোচালক জুনেদ ও তার সহযোগী জাহাঙ্গীর আলম।

ওসমানীনগর থানার ওসি শ্যামল বণিক জানান, ঢাকা থেকে সিলেটের উদ্দেশে ছেড়ে আসে মামুন পরিবহনের একটি বাস। ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের গজিয়া গ্রিন বার্ড কিন্ডারগার্টেনের সামনে পৌঁছালে বাসটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে অটোরিকশা দুমড়েমুচড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলেই দুইজন নিহত হন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়ার পথে দুইজন এবং রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরো দুইজন মারা যান।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআর