Alexa এক ঘুষিতে মাদরাসা শিক্ষকের ৩ দাঁত ফেলে দিল সুপারি চোর!

এক ঘুষিতে মাদরাসা শিক্ষকের ৩ দাঁত ফেলে দিল সুপারি চোর!

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২১:৪৪ ৩ অক্টোবর ২০১৯   আপডেট: ২১:৫৩ ৩ অক্টোবর ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

বরগুনার পাথরঘাটায় সুপারি চোরের এক ঘুষিতে মাদরাসা শিক্ষকের তিনটি দাঁত পড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

সম্প্রতি এ ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহ জালাল ডেইলি বাংলাদেশকে এই মারধরের ঘটনা নিশ্চিত করেছেন। অভিযুক্ত ওই চোরের নাম দুলাল প্যাদা। 

জানা গেছে, কাঁঠালতলী ইউনিয়নের কালীবাড়ি গ্রামে ওই মাদরাসা শিক্ষকের বাড়ি। তিনি পাথরঘাটার একটি দাখিল মাদরাসার সহকারী শিক্ষক। 

লিখিত অভিযোগে ওই মাদরাসা শিক্ষকের স্ত্রী বলেন, গত রোববার স্থানীয় দুলাল প্যাদা আমার বাড়ির সুপারি চুরি করায় তার বিরুদ্ধে ইউপি সদস্য শাহ জালালের কাছে অভিযোগ করে বাড়ি ফিরছিলেন আমার স্বামী। সে সময় দুলাল অতর্কিত হামলা চালায়। ঘুষি মেরে আমার স্বামীর সামনের তিনটি দাঁত ফেলে দেয় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে পালিয়ে যায়। 

পরে স্থানীয়রা আমার স্বামীকে উদ্ধার করে পাথরঘাটা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে চোর দুলালও বিনা কারণে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি হতে চেয়েছিল। তবে তাকে ভর্তি করেনি চিকিৎসক। 

এ ঘটনায় চিকিৎসক কানিজ ফাতিমা রিমু জানান, দুলাল প্যাদাকে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়ার মতো কোনো ইনজুরি হয়নি। 

স্থানীয় ইউপি সদস্য শাহ জালাল জানান, দুলাল প্যাদা ঘুষি দিয়ে ওই মাদরাসা শিক্ষকের তিনটি দাঁত ফেলে দেয়ার পর তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর