Alexa একে একে কবরে ঢুকছে ছাত্র-ছাত্রীরা

একে একে কবরে ঢুকছে ছাত্র-ছাত্রীরা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১২:০৫ ১২ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

এক কিংবা দুইজন নয়, একে একে কবরে ঢুকছেন অনেকেই। তাও আবার তারা নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী। তবে জানেন কি, কেন তারা তারা কবরে ঢুকছে? মানসিক চাপ কমাতেই নাকি এই পন্থা। 

তবে এই বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়াদের যে পথ বাতলেছে তা সত্যিই অভিনব। নেদারল্যান্ডসের নিজমেগেন শহরে র‍্যাডবউড বিশ্ববিদ্যালয়ের স্ট্রেস ম্যানেজমেন্ট পদ্ধতি এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয়।

এটাই সেই কবরর‍্যাডবউড বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ুয়াদের চাপ কমাতে গ্রেভ থেরাপি বা কবরে শুয়ে থাকার পরামর্শ দিয়েছে তারা। এই পদ্ধতিতে একটি কবরের মতো বড় গর্ত থাকে। তাতে শুয়ে থাকতে হয়। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিষয়টি এড়িয়ে যাননি। তাদের ওয়েবসাইটে এই সংক্রান্ত একটি পেজ রয়েছে। সেখানে সবিস্তার লেখা হয়েছে এই পদ্ধতির কথা। সেখানে ওই জায়গায়টিকে পিউরিফিকেশন গ্রেভ বা শুদ্ধিকরণ কবর নামে উল্লেখ করা হয়েছে।

ওয়েবসাইটে লেখা হয়েছে, পড়ুয়ারা এই কবরে শুয়ে থাকতে পারেন। এবং শুয়ে শুয়ে চিন্তা করতে পারেন তাদের জীবনের গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো নিয়ে। তবে শর্তও রয়েছে। পড়ুয়ারা কেবল একটি মাদুর আর একটি বালিশ নিয়ে যেতে পারেন সেখানে। তারা মোবাইল ফোন বা অন্য কোনো ব্যক্তিগত জিনিস নিয়ে যেতে পারবেন না।

কবরে শুয়ে আছেন একজনপিউরিফিকেশন গ্রেভের একটি ভিডিয়ো প্রকাশ করা হয়েছে। কিছু স্থির চিত্র দিয়ে এই ভিডিওটি বানানো হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে, কীভাবে গর্ত খুঁড়ে কবরটি তৈরি করা হচ্ছে। তৈরির পর একজন তার ভিতর শুয়ে রয়েছেন। তার চোখ দিয়ে দেখানো হয়েছে, সেখানে শুয়ে থাকলে কেমন দেখাবে চারদিকটা।

এই কবরের ছবি সামনে আসার পর অনেক টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, তারাও সেখানে শুতে চান। একজন লিখেছেন, তিনি অন্তত ৩০ মিনিট এখানে কাটাতে চান। তবে অনেকেই আবার বিষয়টি বেশ ভয়ের বলে মত প্রকাশ করেছেন।

ভিডিওটি দেখুন এখানে<>

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএমএস