Alexa এই দিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ওড়ে স্বাধীনতার পতাকা

এই দিনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ওড়ে স্বাধীনতার পতাকা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০২:৩৫ ৮ ডিসেম্বর ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া হানাদারমুক্ত দিবস আজ। ১৯৭১ সালের ৮ ডিসেম্বর স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে শত্রুমুক্ত ঘোষনা করেন মুক্তিযুদ্ধের তৎকালীন পূর্বাঞ্চলীয় জোনের প্রধান জহুর আহমেদ চৌধুরী।

এ উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে জেলা প্রশাসন। রোববার সকালে বঙ্গবন্ধু স্কয়ারে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করবেন ডিসি হায়াত-উদ-দৌলা খান। পরে জাতীয় বীর আবদুল কুদ্দুস মাখন পৌর মুক্তমঞ্চে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, সুর সম্রাট আলাউদ্দিন খা পৌর মিলনায়তনে আলোচনা সভা হবে।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে রয়েছে ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ সংগঠন আয়োজিত ভাষা আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধ ভিত্তিক দেয়ালিকা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।

১৯৭১ সালের ৩০ নভেম্বর থেকে আখাউড়া সীমান্ত এলাকায় পাক বাহিনীর উপর আক্রমন শুরু করে মুক্তি ও মিত্র বাহিনী। ১ ডিসেম্বর সীমান্তে যুদ্ধে ২০ হানাদার নিহত হয়। ৩ ডিসেম্বর আজমপুরে নিহত হয় ১১ জন, শহীদ হন তিন মুক্তিযোদ্ধা। এরই মধ্যে শত্রুমুক্র হয় বিজয়নগরের মেরাশানী, সিঙ্গারবিল, মুকুন্দপুর, হরষপুর, আখাউড়ার আজমপুর, রাজাপুর। ৪ ডিসেম্বর আখাউড়া রেল স্টেশনে দুই শতাধিক পাক সেনা হতাহত হয়। ৬ ডিসেম্বর আখাউড়া সম্পূর্ণ শত্রুমুক্ত হয়।

৭ ডিসেম্বর রাতের আঁধারে পাকিস্তানীরা ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহর ছেড়ে আশুগঞ্জের দিকে পালাতে থাকে। ৮ ডিসেম্বর বিনা বাঁধায় মুক্তিযোদ্ধারা ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরে প্রবেশ করে স্বাধীনতার পতাকা ওড়ায়। মুক্ত হয় ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর