Alexa উপজেলায় শ্রেষ্ঠ চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়  

উপজেলায় শ্রেষ্ঠ চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়  

হরিপুর (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:৫৫ ৬ ডিসেম্বর ২০১৯  

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি : ডেইলি বাংলাদেশ

ঠাকুরগাঁও জেলার সীমান্তবর্তী হরিপুর উপজেলার নিভৃতপল্লীর চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় উপজেলা পর্যায়ে এবার শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে নির্বাচিত হয়েছে।

গত ৩০ নভেম্বর উপজেলা যাচাই-বাছাই পদক কমিটি প্রধান শিক্ষকদের সাক্ষাৎকার গ্রহণের মাধ্যমে বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিত্তিতে শিক্ষাক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকার রাখার জন্য চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে নির্বাচিত করে।

বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা বলেন, চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়া-লেখার মান অত্যন্ত ভালো। গুণগত শিক্ষার মান উন্নয়নের জন্য প্রধান শিক্ষক এরফান আলী নিজ উদ্যোগে আমাদের মর্নিং ও নাইট ক্লাসের মাধ্যমে বাড়তি পড়া-লেখা করান। এই বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের বাইরে কোনো কোচিং করতে হয় না। 

তারা আরো বলেন, বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের পড়া-লেখার পাশাপাশি বিনোদন বিকাশের জন্য প্রধান শিক্ষক এরফান আলী নিজ জমিতে তৈরি করেছেন একটি শিশু পার্ক। ক্লাস শেষে শিশু পার্কে আমরা বিনোদনের মাধ্যমে আনন্দ উপভোগ করি।


ইউএনও ও যাচাই-বাছাই জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক কমিটির সভাপতি আব্দুল করিম বলেন, উপজেলার চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে এবার শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে নির্বাচিত করার হয়েছে। 

তিনি আরো বলেন, এই বিদ্যালয়টিতে গুণগত শিক্ষারমান ও ছাত্র-ছাত্রীর উপস্থিত অত্যন্ত ভালো।

উপজেলা চেয়ারম্যান জিয়াউল হাসান মুকুল বলেন, চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টিতে লেখা-পড়ার মান অত্যন্ত ভালো, লেখা-পড়ার পাশাপশি ছাত্র-ছাত্রীদের বাড়তি জ্ঞান অর্জনের জন্য বিদ্যালয়টি একটি শিশু বিনোদন কেন্দ্র স্থাপন করেছেন এবং অকালে ছাত্র-ছাত্রী যেন ঝরে না যায়। সে লক্ষ্যে নিজ উদ্যোগে মিড-ডে-মিল চালু রাখা হয়েছে।

চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এরফান আলী, ম্যানেজিং কমিটি ও সব শিক্ষককে সবসময় উৎসাহ দিয়ে আসছে। তারা যেন সামনে আরো এগিয়ে যায় সেই প্রত্যশা করি।

উপজেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষা কর্মকর্তা মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, উপজেলার ১১১টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মধ্যে ৩টি ক্লাস্টারে যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে ঘোষণার জন্য উপজেলা যাচাই-বাছাই ও জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদক কমিটির কাছে ৩টি বিদ্যালয়ের নাম দাখিল করা হলে বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিত্তিতে চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে শিক্ষা পদক কমিটি শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে ঘোষণা করেছে।

প্রধান শিক্ষক এরফান বলেন, চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ২০০১ সালে যাত্রা শুরু করে। অকালে ছাত্র-ছাত্রী ঝরে যেন না যায় সে লক্ষ্যে বিদ্যালয়ের আমি নিজ উদ্যোগে ২০১৪ সালে মিড-ডে-মিল চালু করি। নিজ অর্থায়নে মিড-ডে-মিল চালু করার আমার এই উদ্যোগ সারা দেশে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছে। এখন পর্যন্ত চালু রয়েছে মিড-ডে-মিল। ছাত্র-ছাত্রীদের বিনোদনের জন্য বিদ্যালয় সংলগ্ন নিজ জমিতে তৈরি করা হয়েছে একটি শিশু পার্ক।

ছাত্র-ছাত্রীদের বিনোদন বিকাশের জন্য শিশু পার্কে রয়েছে হাতি, জিরাফ, ফুলের বাগান, ব্রিজ, নৌকাসহ বিভিন্ন রাইডার। বর্তমানে এই বিদ্যালয়টিতে ঝরে যাওয়া ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা শূন্য ভাগ। ছাত্র-ছাত্রী ঝরে পড়া রোধে গত ২০১৬ সালে শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে নির্বাচিত হয়েছিল। বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিত্তিতে এবারও চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে শিক্ষা পদক কমিটির শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে নির্বাচিত হয়েছি। চরভিটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে শিক্ষা পদক কমিটি শ্রেষ্ঠ বিদ্যালয় হিসেবে ঘোষণা করায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।
 

ডেইলি বাংলাদেশ/জেএইচ