Alexa উন্মাদনা নয়, হিনার গানে ছিলো শ্রবণের আকুতি

উন্মাদনা নয়, হিনার গানে ছিলো শ্রবণের আকুতি

বিনোদন প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০১:২৪ ১৬ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১১:৩১ ১৬ নভেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

লোকসংগীত বাঙালি জাতির হাজার বছরের বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের ধারক ও বাহক। এই লোকসংগীত চর্চা এবং প্রসারের জন্য ২০১৫ সাল থেকে প্রতি বছর অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে ‘ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ফোক ফেস্ট’। এবার বসেছে এ উৎসবের পঞ্চম আসর। বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া এ উৎসবের দ্বিতীয় দিনের প্রধান চমক ছিলেন পাকিস্তানের জনপ্রিয় সুফি গানের শিল্পী হিনা নাসরুল্লাহ।সুরেলা কণ্ঠের হিনা উপমহাদেশে সুফি গানের জন্য বেশ জনপ্রিয়। 

শৈশব থেকে পাকিস্তানি টেলিভিশনে হামদ ও নাত পরিবেশনের মাধ্যমে সংগীত জীবন শুরু করেন হিনা। উর্দুর পাশাপাশি সিন্ধি ও সারাইকি ভাষায় গানেও পারদর্শিতারয়েছে তার। শুক্রবার ফোক ফেস্টের শেষ পরিবেশনার শুরুতে হিনা গেয়ে ওঠেন ‘সুবহান আল্লাহ, সুবহান আল্লাহ’ সুফি গান। এরপর গেয়ে ওঠেন ‘ইয়া রসুল আল্লাহ, ইয়া হাবিব আল্লাহ’।

হিনা গেয়েছেন, বালাগাল উলাবি কামালিহি নাতে রাসুল। এরপর নুসরাত ফতেহ আলী খানসহ আরো বেশ কিছু শিল্পীর জনপ্রিয় গান পরিবেশন করেন তিনি। এরপর একের পর এক বেশ কিছু সুফি ও কাওয়ালি গান গেয়ে শোনান তিনি। তার গানে দর্শকদের মাঝে তেমন উন্মাদনা না থাকলেও ছিলো নীরবে শ্রবণের আকুতি। সুরে ছিলো এক অমিয় সুধা, যা অনুষ্ঠানে আগত দর্শকদের হৃদয়ে স্পর্শ করে নেয়। 

শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় উৎসবে ঢল নামে শ্রোতা-দর্শকের। শুরুতেই বাংলাদেশের ম্যাজিক বাউলিয়ানা খ্যাত কামরুজ্জামান রাব্বি ও শফিকুল ইসলাম গান পরিবেশন করেন। এরপর লোকসংগীত, বাউল ও সুফি গানের শিল্পী ফকির শাহাবুদ্দিন ও মালির হাবিব কইটে অ্যান্ড বামাদা গান পরিবেশন করে দর্শকদের সুরের দোলায় ভাসান।

সান ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত এ উৎসবের পর্দা নামবে শনিবার। শেষ দিনে গান গেয়ে শোনাবেন বাংলাদেশের কাজল দেওয়ান, চন্দনা মজুমদার, পাকিস্তানের জুনুন এবং রাশিয়ার সাত্তুমা।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএ/টিএএস