উইয়ার্ড হাসি মেরে বলতো ‘আমি নোয়াখাইল্লা’

উইয়ার্ড হাসি মেরে বলতো ‘আমি নোয়াখাইল্লা’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৮:২৭ ৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ১৬:২৭ ১৯ আগস্ট ২০২০

ছবি- অপুর লাইকি থেকে নেয়া

ছবি- অপুর লাইকি থেকে নেয়া

এক ব্যক্তিকে মারধরের অপরাধে প্রেফতার হওয়া ইয়াসিন আরাফাত অপু ওরফে অপু ভাইকে নিয়ে নানা মহলে চলছে আলোচনা। তার বাড়ি নোয়াখালীর সোনাইমুড়িতে। সেখান থেকে লাইকি অ্যাপের মাধ্যমে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে কিশোর ইয়াসিন আরাফাত। রঙিন চুলে ছোট ছোট ভিডিও তৈরি করে পরিচিতি লাভ করেন ‘অপু ভাই’ নামে। 

ব্যতিক্রম হাসি, রঙ-বেরঙের হেয়ারস্টাইল আর অদ্ভুত সব ডায়লগের জন্য টিকটক ও লাইকিতে আলোচনার তুঙ্গে ছিলো ‘অপু ভাই’। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার লাখ লাখ অনুসারী। টিকটক আর লাইকির মাধ্যমে ভক্ত তালিকার কেউ কেউ হয়ে যান অপুর বান্ধবী। এরপর বান্ধবীদের সঙ্গে চলে অপুর ডেট। তাদের নিয়ে নতুন নতুন কনটেন্টও বানায় অপু।

বিতর্কিত টিকটকার অপু

লাইকি অ্যাপে তাকে অনুসরণ করে প্রায় ১০ লাখ। ইনস্টাগ্রামেও তার অনুসারী ছিল। কিন্তু প্রিন্স মামুন নামের আরেক ‘লাইকি তারকা’র অনুসারীরা সেই ইন্সটাগ্রাম আইডি রিপোর্ট দিয়ে মুছে ফেলে। 

বিতর্কিত এ লাইকি তারকা অপু সম্পর্কে নজরুল নামের একজন সোশ্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফেসবুকে লেখেন, নোয়াখালীর বার্বার শপে কাজ করা অপু ‘অফু বাই’ নামে তুমুল জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন লাইকি ও টিকটকে। অফুর উইয়ার্ড হাসি, ক্রিপি হেয়ারস্টাইল ও অদ্ভুত সব ডায়ালগের জন্য এই তরুণকে মূলত রোস্ট করতে করতে বিখ্যাত বানিয়েছে ইউটিউবাররা।

সে কারণেই সে অল্প সময়ের মধ্যেও রিচের দিক দিয়ে মামুনকেও ছাড়িয়ে গেছে। এখন সে ঢাকা এসে তার ফ্যানক্লাবের ফ্যানদের সঙ্গে মিটআপ ও নতুন বান্ধবীদের সঙ্গে ডেট করে বেড়াচ্ছে। অপু নিজেকে কখনো কুমিল্লার পোলা আবার কখনো নোয়াখাইল্লা বলে পরিচয় দিলেও ঢাকার আশকোনায় থাকতো সে।

আদালত চত্বরে অপু - সংগৃহীত

রোববার উত্তরা পূর্ব থানাধীন ৬ নম্বর সেক্টরের আলাউল এভিনিউ এলাকায় সড়কে এক ব্যক্তিকে মারধর করেন অপু। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই ব্যক্তি থানায় মামলা করেন।  ওই মামলায় সোমবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অপুকে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে পাঠানো হয়। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিনদিনের রিমান্ড চাওয়া হয়। তবে আদালত রিমান্ড ও জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন তাকে।

এদিকে লাইকি ও টিকটকের বির্তর্কিত তারকা অপুকে গ্রেফতারের খবর ছড়িয়ে পড়ার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীরা ব্যাপক সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। 

ডেইলি বাংলাদেশ/টিআরএইচ