ঈদ উপলক্ষে ৩ দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা তালেবানের

ঈদ উপলক্ষে ৩ দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণা তালেবানের

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:২৮ ২৪ মে ২০২০   আপডেট: ১৬:২৯ ২৪ মে ২০২০

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

পবিত্র ঈদের জন্য আফগানিস্তান সরকারের সঙ্গে তিন দিনের যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়েছে তালেবান। গত কয়েক সপ্তাহে সরকারি বাহিনীগুলোর ওপর বেশ কয়েকটি প্রাণঘাতী হামলা চালানোর পর জঙ্গি গোষ্ঠীটি এ ঘোষণা দিলো।

রোববার আফগানিস্তানে মুসলমান সম্প্রদায়ের বৃহৎ ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর উদযাপিত হচ্ছে।

ঈদ উপলক্ষে তালেবানদের এই যুদ্ধবিরতির ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছেন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি।

তিনি বলেছেন, তার সেনারা যুদ্ধবিরতির শর্তকে সম্মান করবে।

তিনদিনের এই যুদ্ধবিরতি দেশটিতে দীর্ঘদিন ধরে চলা সহিংসতা হ্রাস পাওয়ার আশা জাগাচ্ছে।

তবে ২০১৮ সালেও ঈদ উদযাপনে একইভাবে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছিল, এরপরেও যুদ্ধ অব্যাহত ছিল।

শনিবার এক ঘোষণায় তালেবান মুখপাত্র জাবিহউল্লাহ মুজাহিদ বলেছেন, ‘কোথাও শত্রুর বিরুদ্ধে আক্রমণাত্মক কোনো অভিযান চালাবেন না। তবে যদি শত্রুরা আপনাদের বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নেয় তাহলে আত্মরক্ষা করবেন।’

শুধু ইদুল ফিতরের জন্য এই যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এর কিছুক্ষণের মধ্যেই এক টুইটে প্রেসিডেন্ট গনি লিখেন, ‘আমি যুদ্ধবিরতির ঘোষণাকে স্বাগত জানাই। তিন দিনই এই যুদ্ধবিরতি মেনে চলতে সামরিক বাহিনীকে নির্দেশনা দিয়েছি আমি এবং শুধু আক্রান্ত হলে আত্মরক্ষা করতে বলেছি।’

এদিকে ঈদের নামাজের পর প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ থেকে এক টেলিভিশন ভাষণে আসরাফ গনি বলেন, দায়িত্বশীল সরকার হিসেবে আমরা আরও একটি পদক্ষেপ এগিয়ে নিতে চাই। আমি ঘোষণা দিচ্ছি— শিগগিরই তালেবান বন্দীদের মুক্তি দেয়া হবে।

ফেব্রুয়ারিতে স্বাক্ষরিত মার্কিন-তালেবান চুক্তির আওতায় বন্দী বিনিময়ে সম্মত হয়েছিল আফগানিস্তান সরকার। তালেবান বন্দীদের মুক্তির বিষয়টি শান্তি আলোচনায় প্রধান অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

তালেবান বন্দীদের মুক্তি যুদ্ধের অবসানের দিকে প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে গণ্য করা হয়েছিল। তবে তালেবানরা অভিযোগ করেছে যে, আফগান কর্মকর্তারা বন্দীদের মুক্তি দিতে বিলম্ব করছে। অন্যদিকে সরকারের কর্মকর্তারা তালেবানদের অভিযোগ অযৌক্তিক বলে দাবি করেছেন।

সূত্র: বিবিসি

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী