ইসরায়েলের সঙ্গে ‘ঐতিহাসিক শান্তি চুক্তি’ করল আমিরাত

ইসরায়েলের সঙ্গে ‘ঐতিহাসিক শান্তি চুক্তি’ করল আমিরাত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ০৪:৪৬ ১৪ আগস্ট ২০২০   আপডেট: ০৭:৪৭ ১৪ আগস্ট ২০২০

মোহাম্মদ বিন জায়েদ ও বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ফাইল ছবি

মোহাম্মদ বিন জায়েদ ও বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। ফাইল ছবি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় ইসরায়েল এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত নিজেদের মধ্যে স্বাভাবিক সম্পর্ক স্থাপনে রাজি হয়েছে। এর ফলে মধ্যপ্রাচ্যের দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্ক পুরোপুরি স্বাভাবিক হবে।

বৃহস্পতিবার সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং ইসরায়েলের ঐতিহাসিক শান্তি চুক্তিতে পৌঁছানোর তথ্য এক টুইট বার্তায় জানিয়েছেন ট্রাম্প। 

এদিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প, ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু এবং আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন জায়েদের মধ্যে টেলিফোনে আলোচনায় এ চুক্তি নিশ্চিত হয়।

এই তিন নেতা এক যুক্ত বিবৃতিতে আশা প্রকাশ করেছেন, এই ঐতিহাসিক অগ্রগতি মধ্যপ্রাচ্যে শান্তির অগ্রযাত্রায় সাহায্য করবে। বিবৃতিতে তিন রাষ্ট্রনেতা ইসরায়েল এবং আমিরাতের কূটনৈতিক সম্পর্ক সম্পূর্ণ স্বাভাবিক করতে সম্মত হয়েছেন।

তারা জানিয়েছেন, দুই দেশের মধ্যে স্বাভাবিক সম্পর্কের বিনিময়ে ইসরায়েল পশ্চিম তীরের বিশাল ফিলিস্তিনি এলাকা ইসরায়েলের অংশ করে নেয়ার কাজ আপাতত স্থগিত রাখবে।

ইসরায়েলের সঙ্গে এতদিন পর্যন্ত উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্রের কোনো কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিল না। তবে ওই অঞ্চলে ইরানের প্রভাব বাড়তে থাকায় উদ্বিগ্ন সংযুক্ত আরব আমিরাত ইসরায়েলের সঙ্গে অনানুষ্ঠানিক যোগাযোগ বাড়াচ্ছিল। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের এই ঘোষণার পর নেতানিয়াহু হিব্রুতে টুইট করেছেন, এক ঐতিহাসিক দিন।

এটি ইসরায়েলের সঙ্গে তৃতীয় কোনো আরব রাষ্ট্রের শান্তি চুক্তি। এর আগে মিশর ১৯৭৯ সালে এবং জর্ডান ১৯৯৪ সালে ইসরায়েলের সঙ্গে শান্তি চুক্তি করে। সূত্র-বিবিসি বাংলা।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডআর