Alexa ইয়েমেনের সীমান্তে সৌদি দুই সেনা নিহত

ইয়েমেনের সীমান্তে সৌদি দুই সেনা নিহত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৭:১৮ ১৮ নভেম্বর ২০১৯  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ইয়েমেনের সীমান্তে সৌদি আরবের দুই সেনা সদস্য নিহত হয়েছেন। রোববার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে সৌদি প্রেস এজেন্সি।

সৌদি আরবের সরকারী বার্তা সংস্থা এসপিএ জানিয়েছে, ইয়েমেনের দক্ষিণ সীমান্তে দায়িত্ব পালনরত অবস্থায় ফারিস সাইদ আল-গামিদি ও বদর ইসা ইস সিলমি নিহত হয়েছেন।

প্রতিবেদনে নিহতদের পদমর্যাদা প্রকাশ করা হয়নি। এমনকি কখন কী পরিস্থিতিতে তারা নিহত হয়েছেন তারও বিস্তারিত জানানো হয়নি। তবে সীমান্তে মাঝেমধ্যেই ইয়েমেনের ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীদের হামলার লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয় সোদি সেনারা। পাশাপাশি নাজরান ও জিজানের সৌদি সীমান্তবর্তী শহরগুলোতেও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হয়।

এর আগেও নভেম্বর মাসের শুরুতে সৌদি আরব ঘোষণা করেছিল যে জিজানে পাঁচ সেনা নিহত হয়েছে।

২০১৪ সালে রাজধানী সানা দখলের পর সৌদি সমর্থিত ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আবদু রাব্বু মনসুর আল হাদিকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করে হুথি বিদ্রোহীরা। একারণে হাদি পালিয়ে সৌদিতে আশ্রয় নেন। ২০১৫ সালে যখন সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট হুথির আঞ্চলিক লাভ ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে একটি বিধ্বংসী বিমান অভিযান শুরু করে তখন এই সংকট আরো বেড়ে যায়। পাল্টা প্রতিরোধের অংশ হিসেবে সৌদি সীমান্তবর্তী বিভিন্ন প্রদেশে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা শুরু করে হুথি বিদ্রোহীরা। গত মে মাসের শেষদিকে পবিত্র নগরী মক্কা ও জেদ্দায় দুটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হলে তা ধ্বংস করার দাবি করে সৌদি প্রতিরক্ষা বাহিনী। প্রায় একই সময় সৌদির নাজরান বিমানবন্দরে তিন দফায় হামলা চালানোর দাবি করে হুথি বিদ্রোহীরা। এরপরও বিভিন্ন সময়ে দফায় দফায় তেলক্ষেত্রসহ সৌদি আরবের বিভিন্ন স্থাপনায় হামলা অব্যাহত রাখে বিদ্রোহীরা। হুথিদের দাবি, তারা সৌদি আরব, ইয়েমেন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৩০০ গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনাকে টার্গেট করে হামলা অব্যাহত রাখবে।

এসব সংঘর্ষে অসংখ্য বেসামরিকসহ কয়েক হাজার ইয়েমেনী নিহত হয়েছেন বলে ধারণা করা হয়। এ সংর্ঘষের কারণে ১৪ মিলিয়ন মানুষ অনাহারের ঝুঁকিতে রয়েছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘ।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএএইচ