Alexa ইতিহাস সৃষ্টিতে টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

ইতিহাস সৃষ্টিতে টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:০১ ৭ নভেম্বর ২০১৯   আপডেট: ২১:১২ ৭ নভেম্বর ২০১৯

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

ভারতের বিপক্ষে প্রথম কোন পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচ জিতে ১-০ তে এগিয়ে টাইগাররা। দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিক ভারতকে হারাতে পারলেই ইতিহাস গড়বে বাংলাদেশ। ভারতের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি সিরিজ জেতার হাতছানি মাহমুদউল্লাহ-মুশফিকদের। এ ম্যাচে টস হেরে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন ভারতের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক রোহিত শর্মা।

বৃহস্পতিবার ভারতের গুজরাট রাজ্যের রাজকোটের সৌরাষ্ট্র ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৭টায়।

প্রথম ম্যাচে জয় পাওয়া টাইগাররা সিরিজ জিতে নিতে চাইবে আজই। তবে ভারতও চাইবে ম্যাচটি জিতে নিতে। সিরিজ জিততে মরিয়া ভারতের ধারণা, ম্যাচ মাঠে গড়ালে জিত তাদেরই হবে। তার কারণও আছে অনেক। ভারত এখন পর্যন্ত নিজেদের মাঠে মাত্র চারটি টি-টোয়েন্টি সিরিজ হেরেছে। ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার মতো শক্তিশালী দলগুলোর কাছে হেরেছে তারা। বাংলাদেশের কাছে হারলে সেটি হবে পঞ্চম সিরিজ হার। আত্মবিশ্বাসী টাইগাররা মোটেও ছেড়ে কথা বলবে না।

প্রথম ম্যাচে টাইগাররা যেভাবে খেলেছে তাতে বেশ উজ্জীবিত তারা। এক সময় জয় অসম্ভব মনে হলেও এখন সিরিজ জয়ের স্বপ্ন দেখছে লাল-সবুজ জার্সিধারীরা।  আজকের ম্যাচটি জিততে পারলেই সেই ঐতিহাসিক একটি মুহূর্ত ধরা দেবে টাইগারভক্তদের সামনে। 

সাম্প্রতিক সময়ে মাঠের বাইরের ঘটনায় কোণঠাসা বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচটি জিতে বেশ নাটকীয়ভাবে দৃশ্যপট বদলে দিয়েছে। নবীন খেলোয়াড়রা এক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রেখেছেন। নাইম, ধ্রুব ও বিপ্লবদের মতো নবীনদের সঙ্গে মুশফিক-মাহমুদউল্লাহ’রা প্রথম ম্যাচের মতো আজও জ্বলে উঠলেই অধরা স্বপ্ন ধরা দেবে। তবে লিটন দাসের ব্যাটে রান না আসা দুশ্চিন্তার কারণ হলেও সৌম্যের দৃঢ়তা আশার আলো দেখাচ্ছে টাইগার শিবিরে। 

অবশ্য ভারত ছাড় দেয়ার পাত্র নয়।  সিরিজে সমতা আনতে ঝাঁপিয়ে পড়বে তারা। নিশ্চিতভাবেই আরো বেশি প্রত্যয় ও আগ্রাসী হয়ে মাঠে নামবে। তবে ভয়টা তাদেরই বেশি। স্বভাবতই সিরিজে চোখ বাংলাদেশের। আত্মবিশ্বাস ও প্রথম ম্যাচের ছন্দটা ধরে রাখতে পারলে ইতিহাস গড়া সম্ভব।

ডেইলি বাংলাদেশ/আরএস/এম