ইতালিতে ‘জরুরি অবস্থা’ অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশি আটক

ইতালিতে ‘জরুরি অবস্থা’ অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশি আটক

ইসমাইল হোসেন স্বপন, ইতালি প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ২২:০৩ ১৬ মার্চ ২০২০   আপডেট: ২২:০৮ ১৬ মার্চ ২০২০

ইতালির নাপোলির সান জুসেপ্পে ভেসুভিয়ানো এলাকা থেকে ৯ বাংলাদেশিকে আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ

ইতালির নাপোলির সান জুসেপ্পে ভেসুভিয়ানো এলাকা থেকে ৯ বাংলাদেশিকে আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ

নভেল করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত ইতালি জুড়ে জারি করা জরুরি অবস্থা (রেড জোন) অমান্য করায় ৯ বাংলাদেশিকে আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ। গতকাল রোববার (১৫ মার্চ) সন্ধ্যায় ইতালির নাপোলির সান জুসেপ্পে ভেসুভিয়ানো এলাকা থেকে তাদের আটক করে স্থানীয় পুলিশ।

ইউরোপের মধ্যে ইতালিতে সবচেয়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে করোনাভাইরাস। এ মহামারি ঠেকাতে নানা পদক্ষেপের পাশাপাশি পুরো ইতালিতে জারি করা হয়েছে জরুরি অবস্থা।

ইতালির সব শহরের প্রবেশদ্বারে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এক শহর থেকে অন্য শহরে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। শহরে মাইকিং করে ঘর থেকে বের না হওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে। এরপরও যারা অকারণে বাইরে বের হচ্ছেন তাদের জরিমানা গুণতে হচ্ছে, পড়তে হচ্ছে শাস্তির মুখেও। রেড জোনের আইন কেউ অমান্য করলে ২০৬ ইউরো জরিমানার বিধান করা হয়েছে। অন্যথায় ৩ মাস থেকে ২১ বছর পর্যন্ত জেলও হতে পারে। তবে সরকারি অনুমোদন সাপেক্ষে সফরের সুযোগ রয়েছে।

স্থানীয় পৌর প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আটককৃত বাংলাদেশিরা খাদ্য সামগ্রী ক্রয় কিংবা জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়ার কোনো প্রমাণ পুলিশকে দেখাতে পারেননি। ‘রেড জোন’র আওতায় সরকারি নির্দেশনা অনুসারে, এই পরিস্থিতিতে নির্দিষ্ট কারণ চিহ্নিত একটি অনুমতি পত্রে নির্দিষ্ট স্থানের বাইরে যাওয়ার অনুমতি রয়েছে। কিন্তু আটক বাংলাদেশিরা এই নিয়ম মেনে চলেননি।

এছাড়াও তারা রাষ্ট্রীয়ভাবে নির্দেশিত একে অপর থেকে ১ মিটার দুরত্ব বজায় রাখেননি। সেক্ষেত্রে ইতালীয় আইনে পুলিশ আইনের ৬৫০ ধারায় ৯ জন বাংলাদেশিকে আটক এবং সরকারি আইন লঙ্ঘন করায় সংশ্লিষ্ট আইনে জনপ্রতি ২০৬ ইউরো জরিমানা করে। পরে করোনা সন্দেহে যাচাইকরণের জন্য তাদেরকে দু'সপ্তাহের জন্য হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমআরকে