ইউরোপজুড়ে তীব্র তুষারপাতে ২০ জনের মৃত্যু

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩:৫৭ ১২ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৩:৫৭ ১২ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ইউরোপজুড়ে টানা তীব্র তুষারপাতের ঘটনায় ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। ইউরোপের পূর্বাঞ্চলীয় দেশ পোল্যান্ডেই গেল সপ্তাহে তীব্র ঠাণ্ডায় ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ইতালিতে গেল দুই দিনে প্রচণ্ড ঠাণ্ডার কারণে ৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন। চেক প্রজাতন্ত্রের প্রাগে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও তুরস্কে তুষারে ঢেকে গেছে ইস্তাম্বুল শহর।

জার্মানি ও অস্ট্রিয়াতেও তীব্র তুষার পাতে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। আর তুষারপাতের ফলে বাতিল করা হয়েছে জার্মানির মিউনিখ বিমানবন্দরের বহু ফ্লাইট। খবর স্ট্যান্ডার্ড ইউকে’র।

শুক্রবার বুলগেরিয়ায় দুজন স্নোবোর্ডারও নিহত হয়েছেন। প্রাণহানির অধিকাংশ ঘটনাই ঘটেছে সড়ক দুর্ঘটনার কারণে। ভারী তুষারপাতের ফলে সড়ক পিচ্ছিল হয়ে যাওয়ায় মূলত এ দুর্ঘটনাগুলো ঘটছে বলে জানা গেছে।

পোল্যান্ডের পুলিশ সদর দফতর থেকে জানানো হয়েছে, সেখানে একদিনে ২১টি সড়ক দুর্ঘটনার খবর পাওয়া গেছে। তুষারপাতের কারণে তীব্র ঠাণ্ডায় সবচেয়ে ভোগান্তিতে পড়েছেন গৃহহীনরা। শনিবার তাপমাত্রা ছিল মাইনাস ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

তারা বলেন, যেসব স্থানে গৃহহীনরা বেশি বসবাস করেন, সেসব জায়গায় টহল দিচ্ছি আমরা। তাদের সাহায্যে জরুরি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা গৃহহীনদের আমরা অভ্যর্থনা কেন্দ্রে পাঠানোর ব্যবস্থাও করছি।

পোল্যান্ডের মতো অবস্থা ইতালিতেও। ভারী তুষারপাতে দুই দিনে প্রচণ্ড ঠাণ্ডার কারণে ৭ জনের প্রাণ গেছে। গ্রিসে তাপমাত্রা নেমে এসেছে মাইনাস সেভেন ডিগ্রি সেলসিয়াসে। গ্রিসের লেসবস দ্বীপে ভারী তুষারে ঢেকে গেছে শরণার্থী শিবিরের তাবুগুলো। প্রচণ্ড ঠাণ্ডায় বেঁচে থাকা দায় হয়েছে শরণার্থী শিবিরে বাস করা শিশু ও বয়স্কদের।

ভারী তুষারে ঢেকে গেছে তুরস্কের ইস্তাম্বুল। তুর্কি এয়ারলাইন্স সাড়ে ছয় শতাধিকেরও বেশি ফ্লাইট বাতিল করেছে। হাজার হাজার যাত্রী অপেক্ষায় আছেন স্বাভাবিক পরিস্থিতির। রাস্তাঘাট তুষার জমে থাকায় ব্যাহত হচ্ছে যানচলাচল।

তিনি বলেন, তুষারপাত অবশ্যই সুন্দর। কিন্তু ইস্তাম্বুলে তুষারপাত মানে জীবনযাত্রা থমকে যাওয়া। রাস্তাঘাটের অবস্থা খারাপ হয়ে যায় আর যানজট লেগে যায়।

বেলজিয়ামেও একই পরিস্থিতি। তুষারপাতে ব্যাহত হচ্ছে যান চলাচল। ফলে প্রায়ই ঘটছে দুর্ঘটনা। আর সুইজারল্যান্ডে ভারী তুষারপাতে তাপমাত্রা নেমে এসেছে মাইনাস ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী/এসআইএস