ইউপি মেম্বারের দুই পা ভেঙে দিলো ভাই-ভাতিজারা

ইউপি মেম্বারের দুই পা ভেঙে দিলো ভাই-ভাতিজারা

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩১ ২৭ মে ২০২০  

ভুক্তভোগীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন

ভুক্তভোগীর শরীরে আঘাতের চিহ্ন

মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ায় এক সাবেক ইউপি মেম্বারকে পিটিয়ে দুই পা ভেঙে দিয়েছে তারই আপন বড় ভাই ও দুই ভাতিজা। ওই সময় মেম্বারে স্ত্রী-মেয়ে এগিয়ে এলে তাদেরও মারধর করা হয়।

মঙ্গলবার ওই উপজেলার বালুয়াকান্দি ইউপির আড়ালিয়া গ্ৰামে এ ঘটনা ঘটে। আহত এবাদুল্লাহকে ওই ইউপির সাবেক মেম্বার। অভিযুক্তরা হলেন- ভুক্তভোগীর ভাই শহীদুল্লাহ ও তার দুই ছেলে তোফাজ্জল, তরিকুল।

পরিবারের সদস্যরা জানান, এবাদুল্লাহকে প্রথমে ঘর থেকে ডেকে নিয়ে যায় অভিযুক্তরা। এরপর লোহার পাইপ, কাঠ দিয়ে পিটিয়ে দুই পা ভেঙে দেয়। ওই তার চিৎকারে স্ত্রী হালিমা বেগম ও মেয়ে এগিয়ে গেলে তাদেরও পিটিয়ে আহত করা হয়। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সোনারগাঁও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

জানা গেছে, মারধরে এবাদুল্লাহর দুটি পায়ের গোড়ালির উপরের অংশ ভেঙে গেছে। শরীরের বিভিন্ন স্থানেও আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গজারিয়া থানার ওসি ইকবাল হুসাইন জানান, শহীদুল্লাহর সঙ্গে এবাদুল্লাহর বাড়ির সীমানা নিয়ে কয়েক বছর ধরে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে কয়েকবার সালিশও হয়েছে। মঙ্গলবার এরই জেরে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে এবাদুল্লাহকে লোহার পাইপ ও কাঠ দিয়ে পেটায় শহিদুল্লাহ ও তার ছেলেরা।

ওসি আরো জানান, ঘটনার পর এবাদুল্লাহর মেয়ে ৯৯৯-এ কল করে বিষয়টি। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে অভিযুক্তরা বাড়িতে তালা দিয়ে পালিয়ে যায়। তাদের ধরতে অভিযান চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর