আসামের নাগরিকত্ব বিল নিয়ে উলফার হুমকি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮:৫৪ ১১ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ১৮:৫৯ ১১ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি- সংগৃহীত

ছবি- সংগৃহীত

ভারতের আসামে বসবাসকারী বাঙালিরা সরকারের নাগরিকত্ব বিলের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে শামিল হওয়ার কথা বলেছে ‘ইউনাইটেড লিবারেশন ফ্রন্ট অব আসাম (উলফা)’। অন্যথায় তাদের শত্রু বলেই গণ্য করা হবে বলে হুমকি দিয়েছে উত্তর-পূর্ব ভারতের এ বিচ্ছিন্নতাবাদী দলটি। 

বৃহস্পতিবার স্বায়ত্তশাসনের পাশাপাশি বিভিন্ন দাবিতে আন্দোলনরত সংগঠন উলফার প্রধান পরেশ বরুড়া এ হুমকি দেন।  শুধু বাঙালি নয়, ভূমিপুত্রদের কোণঠাসা করার জন্য আনা নাগরিকত্ব বিলের প্রতিবাদ না জানালে হিন্দিভাষীরাও আসামে থাকার অধিকার হারাবে বলে হুমকি দেন পরেশ।

পরেশ বড়ুয়ার দেয়া এক বিবৃতির বরাত দিয়ে কলকাতাভিত্তিক দৈনিক আনন্দবাজার জানিয়েছে, ‘জোর করে আসামবাসীর আন্দোলন দমিয়ে রাখা যাবে না। এই লড়াইয়ে উলফার সশস্ত্র বাহিনীই নেতৃত্ব দেবে।’

উলফার আরেক নেতা জিতেন দত্ত বলেন, ‘ভারত আসামের দাবি না মানলে, আসামেরও স্বাধীনতার দাবি তোলার অধিকার আছে।’ তিনি জানান, তার অনুগত লোকেরা শ্রীরামপুর সীমানা দিয়ে আসামের কোনও পণ্য বাইরে যেতে দেবে না।

এদিকে ‘স্বাধীন আসাম’- দাবি তোলায় অসমীয় ভাষার বিশিষ্ট সাহিত্যিক হীরেন গোঁহাই, কৃষক সংগ্রাম সমিতির নেতা অখিল গগৈ ও এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। 

বৃহষ্পতিবারও রাজ্যটির বিভিন্ন স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীরা ক্লাস বয়কট করেছে। প্রতিবাদে শামিল হয়েছে চিকিৎসক সংগঠনও। সংশোধনীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন সংগঠনের যৌথ মঞ্চ আইন অমান্য আন্দোলন ও অর্থনৈতিক অবরোধের ডাক আগেই দিয়েছে।

তাদের তরফে বলা হয়, ভবিষ্যতে নরেন্দ্র মোদি ও অমিত শাহের সফর বয়কট করা হবে। আগামী কোনও ভোটে বিজেপিকে ভোট না দেয়ার আহ্বানও জানানো হয়েছে।

এদিকে অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে প্রশাসন সব রকম জনমতের ওপর নিষেধা়জ্ঞা জারি করেছে। কামরূপ মহানগর ও পূর্ব গোহাটিতে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/মাহাদী/জেডআর