আন্তর্জাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রে সেরা ‘আমি কে’

প্রকাশিত: ১৭:৪৫ ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭  

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

ভারতের মডেল এন মুভি আর্ন্তজাতিক স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭ এ সেরা আর্ন্তজাতিক পুরস্কার পেল বাংলাদেশের ‘আমি কে’-নো আইডেন্টিটি।

এ উৎসবে ২৩ ও ২৪ ডিসেম্বর দুই দিনব্যাপী দেশ বিদেশের বহু শর্ট ফিল্ম জমা পড়ে। প্রদর্শনীর জন্য জুরী কমিটি তার মধ্যে মাত্র ৩৭টি ছবিকে নির্বাচন করেন।

উৎসবে উদ্বোধনী ছবি ছিল ধনঞ্জয় মণ্ডল পরিচালিত ‘রোল নম্বর ১৭’।

উৎসবে দর্শকদের ভালো লাগা কিছু ছবির মধ্যে অন্যতম দিগন্ত দে’র ‘রোডসাইড সায়েন্টিস্ট’, রূপান মালিকের ‘দা ফিল্ম মেকার’, রাজকুমার দাসের ‘সংগ্রামী সুন্দরবন’ ও ‘আন ইন্ডিয়ান ওমান’সহ সঞ্জয় সেনগুপ্তর ‘তৃষ্ণা’, বাংলাদেশের ছবি রিতম ব্যানার্জীর ‘লাইফ অফ আ ট্রাভেলার’সহ একগুচ্ছ ছবি।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের চলচ্চত্রিকে পিছনে ফেলে ‘আমি কে’ পুরস্কৃত হয়েছে। ছবিটি সেরা পরিচালক ও অভিনয় শিল্পী-দুই ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতে নেয়।

তরুণ নির্মাতা বুলবুল মাসউদ পরিচালিত ছবিটি স্বর্ণপদক জিতে নিয়েছে সেরা পরিচালক ক্যাটাগরিতে এবং সেরা অভিনয় শিল্পী হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে এটিএন ট্যালেন্ট খ্যাত শিশু অভিনয় শিল্পী আর এস শুভ।

বুলবুল মাসউদ বলেন, ‘আমি কে’ চলচ্চিত্র পথশিশুদের নিয়ে নির্মিত। এটি প্রায় নয় মিনিটের স্বল্পদর্ঘ্যৈ চলচ্চিত্র। একটি পথ শিশু তার নিজেকে আবিষ্কার করার ভিন্ন ধাঁচের গল্প এটি। আমাদের সমাজের হাজারো পথশিশুর জীবনের বাস্তবিক গল্পের চিত্রায়ন এটি।

তিনি জানান, এছাড়াও ছবিটি বিভিন্ন চলচ্চিত্র উৎসবে মনোনীত হয়েছে।

ছবিটি প্রযোজনা করেছেন মারজিয়া সুলতানা মিম। তিনি বলেন, দেশের নবীন নির্মাতা বা প্রযোজকরা প্রায়ই তাদের ছোট ছবি নিয়ে যাচ্ছেন আর্ন্তজাতিক মহলে। নিয়ে আসছেন আর্ন্তজাতিক স্বীকৃতি। এই ছোট ছোট স্বীকৃতি-ই এক সময় চলচ্চিত্র শিল্পকে বড় বড় প্রাপ্তির দিকে নিয়ে যাবে।

ছবিটির সিনেমাটোগ্রাফার ছিলেন বিজয় মাহমুদ। সম্পাদনা করেন ফখরুল ইসলাম এবং সহকারী পরিচালক ছিলেন মশিউর রহমান।

‘আমি কে’ একটি স্বপ্নবাজ টিম নির্মাণ। ২৪ ডিসেম্বর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে পদক, সনদ ও ক্রেস্ট গ্রহণ করেন স্বপ্নবাজ টিমের সদস্য মাহমুদুল হাসান স্বাধীন।

ডেইলি বাংলাদেশ/আজ/এসআই