Alexa আনন্দের পর নেপাল ক্রিকেটে দুঃসংবাদ 

আনন্দের পর নেপাল ক্রিকেটে দুঃসংবাদ 

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩৬ ১৫ অক্টোবর ২০১৯  

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

সময়টা কম নয় মোটেও। তিন বছর পর গতকাল আবারো ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) সদস্যপদ ফিরে পেয়েছে নেপাল। 

এমন খবরে স্বাভাবিকভাবেই আনন্দে ভাসছিল ছোট্ট দেশটি। কিন্তু সেই আনন্দ আর থাকলো কই? কারণ আজই দেশকে এক দুঃসংবাদ দিলেন নেপাল জাতীয় দলের অধিনায়ক পরশ খাড়কা। 

কি এমন করেছেন তিনি? নেপাল দল তার নেতৃত্বে দারুণভাবে গড়ে উঠেছিল। কিন্তু আচমকা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের অধিনায়কত্ব ছাড়ার ঘোষনা দিয়েছেন পরশ। তার এমন সিদ্ধান্তে যারপরনাই হতবাক ভক্ত-সমর্থকরা। 

টুইটারে অধিনায়কত্ব ছাড়ার ব্যাপারে পরশ লিখেছেন, জেনে ভালো লাগছে নেপালের ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছে। নেপাল ক্রিকেটের নতুন কমিটি, খেলোয়াড় ও অংশীজনরা দেশের ক্রিকেটের উন্নতির জন্য ভালোভাবে কাজ করবে বলে আমি আশাবাদি। নেপাল ক্রিকেটের অধিনায়কত্বের পদ থেকে আমি অব্যাহতি নিলাম। আমার এ পথ চলার সময়ে পাশে থাকার জন্য সকল সতীর্থ, কোচ, আম্পায়ার, গ্রাউন্ডসম্যান, বন্ধু ও আমার পরিবারকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

নেপাল জাতীয় দলের টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে ২০১৪ সালে অধিনায়ক হন পরশ। তার অধীনে দারুণ পারফর্ম করে নেপাল। ২৭টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে জয় পায় ১১টিতে, ১৫টি হারের মুখ দেখে। ভালো করায় ২০১৮ সালের জুলাইয়ে নেপালের ওয়ানডে দলের অধিনায়কত্ব দেয়া হয় পর খাড়কাকে। 

চলতি বছরের শুরুতে তার অধীনে প্রথমবারের মতো ওয়ানডে সিরিজ জয় করে নেপাল। প্রতিপক্ষ ছিলো সংযুক্ত আরব আমিরাত। ঐ সিরিজেই নেপালের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে ওয়ানডে ও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সেঞ্চুরি করেন পরশ।

এমন কেউ অধিনায়কত্ব থেকে সরে আসায় এক প্রকার ধাক্কাই খেলো নেপালের ক্রিকেট। নতুন অধিনায়কের ব্যাপারে বোর্ডের তরফ থেকে এখনো কোন সিদ্ধান্ত জানা যায়নি। 
 

ডেইলি বাংলাদেশ/সালি