আত্রাইয়ে আলুর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

আত্রাইয়ে আলুর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা

আত্রাই (নওগাঁ) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ২১:৩৩ ১০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ২১:৪২ ১০ জানুয়ারি ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

এ বছর বন্যা না হওয়ায় নওগাঁর আত্রাই উপজেলায় রোপা-আমন ধান কাটার সঙ্গে সঙ্গে কৃষকরা আগাম জাতের আলু চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর কৃষকদের মাঝে কৃষি উপকরণসহ রাসায়নিক সার বিনামূল্যে যথা সময়ে বিতরণ করায় কৃষকদের আগাম আলু লাগানো সম্ভব হয়েছে।

উপজেলার ৮টি ইউপিতে এবার সবচেয়ে বেশি পরিমাণ আলু চাষ হয়েছে। যথা সময়ে জমি চাষ যোগ্য হওয়ায় এলাকার কৃষকরা সুযোগ বুঝে আলুর আবাদ করেছে। কৃষি বিভাগ যথাযথ পরামর্শ ও পরিচর্যার বিষয়ে দিক নির্দেশনা দিচ্ছে। আলুর বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা রয়েছে। কৃষকরা এই আলু যথা সময়ে ঘরে তুলতে পারলে এবং বিক্রয় মূল্য ভাল পেলে কৃষকদের আগ্রহ বৃদ্ধি পাবে। 

উপজেলার হাটুরিয়া গ্রামের কৃষক মো. ওসমান আলী বলেন, এবছর ৭বিঘা জমিতে আলুর চাষ করেছি। কিছু বীজ কিনে জমিতে বপণ করেছি। আলুর গাছে ভালো হওয়ায় মনে হচ্ছে এবার আলুর আশানুরুপ ফলন পাব।
 
বেওলা গ্রামের কৃষক খোরশেদ মিয়া বলেন, আমি চলতি মৌসুমে প্রায় সাড়ে ৯বিঘা জমিতে লালপাকরী জাতের আলুর আবাদ করেছি। কোন প্রকার দুর্যোগ ও রোগবালাই না থাকায় এবছর আলুর বাম্পার ফলন পাব বলে আমি আশা করছি।

এবিষয়ে আত্রাই উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ কেএম কাউছার হোসেন বলেছেন, এবারে উপজেলার ৮ ইউপির কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ ২ হাজার ৮ শত হেক্টর জমিতে আলু চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এবছর উপজেলায় লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অধিক জমিতে আলুর আবাদ হয়েছে। মাঠ পর্যায়ে আলু চাষিদের কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে যথাযথ পরামর্শ ও প্রত্যক্ষ কারিগরী সহযোগিতায় আলুক্ষেত অনেকটা রোগ-বালাই মুক্ত হওয়ায় বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষকরা। উপজেলার শাহাগোলা, ভোঁপাড়া, মনিয়ারী, আহসানগঞ্জ ও হাটকালুপাড়া ইউপিতে সবচেয়ে বেশি আলু চাষ হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/জেডএম