Alexa আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষার সময় কমেছে

আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষার সময় কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩৬ ২৯ আগস্ট ২০১৯  

ফাইল ফটো

ফাইল ফটো

আগামী বছরের এইচএসসি পরীক্ষার সময় কমেছে। এবছরের চেয়ে ৭ দিন কম সময়ে নেয়া হবে আগামী বছরের এইচএসসির লিখিত পরীক্ষা। এছাড়া বাংলা ও ইংরেজির পরীক্ষার মধ্যের ব্যবধানও কমিয়ে আনা হয়েছে। আগে যেখানে চার দিনের গ্যাপ থাকতো, এখন সেখানে দুই দিনের গ্যাপ রাখা হয়েছে। প্রকাশিত পরীক্ষার সূচি বিশ্লেষণ করে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

আগামী বছরের এইচএসসির লিখিত পরীক্ষা ১ এপ্রিল শুরু হয়ে চলবে ৪ মে পর্যন্ত। অর্থাৎ মোট ৩৪ দিনে লিখিত পরীক্ষা নেয়ার কথা রয়েছে। যেখানে এবছরের সূচি অনুযায়ী এইচএসসি পরীক্ষার ব্যাপ্তি ছিলো ৪১ দিন। যদিও ঘূর্ণিঝড় ফনির কারনে লিখিত পরীক্ষা পেছাতে হয়েছিলো।

এবছরের সূচি অনুযায়ী লিখিত পরীক্ষার দিন ছিলো মোট ২৩টি। আর আগামী বছরের লিখিত পরীক্ষা হবে মোট ২১ দিনে। এভাবেই ব্যবধান কমেছে দুই দিনের। 

অন্যদিকে, পরীক্ষার মধ্যবর্তী গ্যাপ কমানো হয়েছে ২০২০ সালের এইচএসসির সূচিতে। আগামী বছরে বাংলা প্রথম ও দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা এবছরের মতোই কোন গ্যাপ ছাড়াই অনুষ্ঠিত হবে। তবে বাংলার পরে ইংরেজি প্রথম পত্রের পরীক্ষা হবে এক দিনের ব্যবধানে। বাংলা দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা হবে ২ এপ্রিল বৃহস্পতিবার, আর ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষা হবে ৪ এপ্রিল শনিবার। অথচ এবছর এই দুটি পরীক্ষার মধ্যে তিন দিনের ব্যবধান ছিলো। ২ এপ্রিল বাংলা দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষার পর ইংরেজি প্রথম পত্রের পরীক্ষা হয়েছে ৬ এপ্রিল। এভাবে ব্যবধান কমেছে আরো ২ দিনের। একইভাবে অন্যান্য লিখিত পরীক্ষার মধ্যে এবছর যেখানে দুই পরীক্ষার মাঝে একবার ৪ দিন পর্যন্ত গ্যাপ ছিলো, আগামী বছরের সূচিতে সেই সর্বোচ্চ গ্যাপ ৩ দিনে নিয়ে আসা হয়েছে। একইভাবে দুই দিনের গ্যাপও কমিয়ে বেশিরভাগ গ্যাপ একদিনের করা হয়েছে। এভাবেই এইচএসসি পরীক্ষার সময় বা ব্যাপ্তি কমিয়েছে আন্ত:শিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটি।

এ ব্যাপারে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মু. জিয়াউল হক   বলেন, দীর্ঘ সময় ধরে পাবলিক পরীক্ষা গ্রহণে শিক্ষার্থীদের পাঠদান বাধাগ্রস্থ হয়, তাই শিক্ষার মানোন্নয়নে পরীক্ষার মধ্যের বন্ধ কমিয়ে অল্প দিনের মধ্যে পাবলিক পরীক্ষা শেষ করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমএইচ