Alexa আগামীকাল পবিত্র হজ 

আগামীকাল পবিত্র হজ 

ধর্ম ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১১:৪৯ ৯ আগস্ট ২০১৯   আপডেট: ১১:৫২ ৯ আগস্ট ২০১৯

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

আগামীকাল শনিবার পবিত্র হজ। সারা বিশ্বের ২০ লাখের বেশি মুসলিম পবিত্র হজের অন্যতম ফরজ আদায়ের জন্য এখন সৌদি আরবের মিনায় অবস্থান করছেন। মিনা থেকে তারা যাবেন আরাফাত ময়দানে। সেখানে শুরু হবে হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা। 

বৃহস্পতিবার পবিত্র মক্কার মসজিদুল হারামে আসরের নামাজ আদায়ের পর থেকে হজের অংশ হিসেবে তাবুর নগরী মিনায় পৌঁছেছেন হাজিরা। চার পাশের পাহাড়ে সেলাইবিহীন দুই টুকরা সাদা কাপড় পরে হজের নিয়তে তাদের মুখে   প্রতিধ্বনিত হচ্ছে ‘লাব্বাইক আল্লাহুম্মা লাব্বাইক, লাব্বাইকা লা শারিকা লাকা লাব্বাইক, ইন্নাল হাম্‌দা ওয়ান নি’মাতা লাকা ওয়াল মুল্‌ক, লা শারিকা লাক’।

অর্থ: ‘আমি হাজির, হে আল্লাহ আমি হাজির, তোমার কোনো শরিক নেই, সব প্রশংসা ও নিয়ামত শুধু তোমারই, সব সাম্রাজ্যও তোমার।’
 
প্রতিবছর হজের সময় মুসল্লিদের অস্থায়ী আবাস হিসেবে মিনায় বসানো হাজার হাজার তাবু। এবারও এক লাখ ১৫ হাজার তাবুর নিচে প্রায় ১৪৪ ঘন্টা অবস্থান করবেন বিভিন্ন দেশ থেকে আসা হজযাত্রীরা।

মিনার এই পাহাড়ের উপত্যকায় মদিনা থেকে এসে মহানবী (সা.) এর কাছে শপথ পড়েছিলেন একদল মুসল্লি। যারা পরে ফিরে গিয়ে পরিবেশ তৈরি করেন মদিনায় মহানবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এর হিজরতের।
 
অন্য দেশের হজযাত্রীদের মতো বাংলাদেশের ১ লাখ ২৭ হাজার হজযাত্রী মিনায় অবস্থান করছেন।

শনিবার ৯ জিলহজ ফজরের নামাজ আদায় করে হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা পালনের জন্য গাড়িতে বা ট্রেনে মিনা থেকে হাজিরা রওনা হবেন পবিত্র আরাফাত ময়দানের উদ্দেশে। তবে ১৪ কিলোমিটারের এই পথ বেশিরভাগ হাজি পাড়ি দেবেন পায়ে হেঁটেই।

আরাফাতের পবিত্র ময়দানে বিদায় হজে ভাষণ দিয়েছিলেন মহানবী হজরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া-সাল্লাম। শনিবার সারাদিন আরাফাতে অবস্থান করে আরাফাত থেকে রাতে মুজদালিফায় অবস্থান করবেন হাজীরা। রোববার ভোরে শয়তানকে পাথর মারার উদ্দেশ্যে হাজিরা আবার আসবেন মিনায়।

পবিত্র হজ উপলক্ষে মক্কা, মদিনা, মিনা, আরাফাত ময়দান, মুজদালিফা ও এর আশে পাশের এলাকায় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন আছে। সঙ্গে কাজ করছে ১৬ হাজার গাইড।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকে

Best Electronics
Best Electronics