আইপিএলের কারণে পেছাতে পারে বাংলাদেশের লংকা সফর!

আইপিএলের কারণে পেছাতে পারে বাংলাদেশের লংকা সফর!

স্পোর্টস ডেস্ক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৩:৩৫ ১১ আগস্ট ২০২০  

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে শেষ পর্যন্ত ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (আইপিএল) আয়োজন করতে যাচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। আগামি ১৯ সেপ্টেম্বর শুরু হয়ে মেগা এই ইভেন্টের পর্দা নামবে ১০ নভেম্বর। এদিকে অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা সিরিজ। শোনা যাচ্ছে, আইপিএলের সময়ের সঙ্গে সাংঘর্ষিক হওয়ায় এই সিরিজটি পিছিয়ে যেতে পারে।

আইপিএল শেষ হওয়ার পর সিরিজ আয়োজনের ব্যাপারে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও শ্রীলংকা ক্রিকেট বোর্ডের (এসএলসি) মাঝে আলোচনা চলছে বলে জানিয়েছে বিশেষ এক সুত্র। জানা গেছে, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে এসএলসির সঙ্গে অনেকটা একমত প্রকাশ করেছে বিসিবিও।

মূলত আইপিএল চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা সিরিজ নিয়ে ক্রিকেটপ্রেমীদের আগ্রহ কম থাকবে বলেই এটি নভেম্বরে আয়োজন করার পক্ষে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। এই প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বোর্ডের এক কর্মকর্তা বলেছেন, ‘ব্যবসায়িক দিক থেকে চিন্তা করলে বলা যায় আইপিএল চলাকালীন সময়ে বাংলাদেশ-শ্রীলংকা সিরিজ নিয়ে সকলের খুব কমই আগ্রহ থাকবে। তবে সিরিজটি যদি নভেম্বরে শুরু হয় তাহলে এমনটা হবে না। কারণ সেসময় আইপিএল প্রায় শেষের পথে থাকবে।’

আইপিএল শুরুর পর থেকে প্রতি বছরই বিশ্ব ক্রিকেটে এই টুর্নামেন্টের প্রভাব কম বেশি পড়ে। জনপ্রিয় এই টুর্নামেন্ট চলাকালীন সময়ে বিগত কয়েকবছর ধরেই গুরুত্বপূর্ণ কোনো সিরিজ আয়োজিত হয়নি। দর্শকদের আগ্রহ আইপিএলের দিকেই বেশি নিবদ্ধ থাকায় এসএলসিও নভেম্বরের আগে সিরিজ খেলতে চাইছে না।

বিসিবির সেই কর্মকর্তা আরো বলেছেন, ‘আপনি আইপিএলের অস্তিত্ব অস্বীকার করতে পারবেন না। পূর্বের অভিজ্ঞতা থেকে আমরা বলতে পারি, আইপিএলের সময় অন্যান্য ক্রিকেটীয় কার্যক্রম প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। এছাড়া এবার প্রায় খালি মাঠে আইপিএল আয়োজন করা হবে বিধায় ব্রডকাস্টারদের চাহিদাও অনেক বেশি।’

আইসিসির ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রাম (এফটিপি) অনুসারে চলতি বছরের জুলাই-আগস্টে শ্রীলংকার বিপক্ষে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলার কথা ছিল বাংলাদেশের। তবে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের কারণে সিরিজটি স্থগিত করে বিসিবি। অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পিছিয়ে যাওয়ার পর সেই সময়ে সিরিজটি আয়োজনের ব্যাপারে কথা বলা শুরু করে দুই দেশের ক্রিকেট বোর্ড। 

ডেইলি বাংলাদেশ/এএল