Alexa ‘অসামাজিক কাজের টাকা নিয়ে মিরপুরে দুই নারী খুন’

‘অসামাজিক কাজের টাকা নিয়ে মিরপুরে দুই নারী খুন’

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:৩২ ৫ ডিসেম্বর ২০১৯   আপডেট: ১৯:৩৮ ৫ ডিসেম্বর ২০১৯

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

ছবি: ডেইলি বাংলাদেশ

অসামাজিক কাজের টাকা নিয়ে বিবাদের কারণেই মিরপুরে রহিমা বেগম (৬৫) ও সুমী আক্তার (২০) খুন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ডিবি) মো. আবদুল বাতেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ডিএমপি’র মিডিয়া সেন্টারে এ হত্যাকাণ্ড বিষয়ক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান। এ জোড়া খুনের ঘটনায় বুধবার রাতে ইউসুফ খান ও রমজানকে গ্রেফতার করে মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পশ্চিম বিভাগের একটি টিম।

ডিএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বলেন, ঘটনার দিন রাতে মিরপুরে রহিমার বাসায় যান যৌনকর্মী সুমি। ওই রাতে বাসায় তাদের সঙ্গে রাত কাটাতে আসেন খরিদদার ইউসুফ ও রমজান। রহিমার সঙ্গে চুক্তি হয়, দুইজনের সঙ্গে রাত কাটাতে হলে ছয় হাজার টাকা দিতে হবে। কিন্তু ইউসুফ জানান, তাদের কাছে তিন হাজার টাকা আছে। কাজ শেষে বাকি টাকা রমজান এসে দিয়ে যাবেন। এ নিয়ে তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

‘বাকি টাকা না দিলে তারা বিষয়টি বাবুলকে (যৌন ব্যবসা নিয়ন্ত্রণকারী) বলে দেবেন বলে হুমকি দেন রহিমা। এই বলে রহিমা দরজা বন্ধ করে দেন। এরপর সুমির ঘরে ইউসুফ ঢোকার পর রমজান দরজা বন্ধ করে দিয়ে বাইরে বারান্দায় অবস্থান নেন।’

ডিবির জিজ্ঞাসাবাদে আসামিরা জানান, ভোর রাতের দিকে বারান্দায় থাকা রমজান সুমির ঘরে ঢোকেন। এতে চিৎকার শুরু করেন সুমি। তখন সুমির গলা চেপে ধরেন রমজান ও ইউসুফ। একপর্যায়ে সুমি মারা যান।

পুলিশের এ কর্মকর্তা আরো জানান, অভিযুক্তদের একজন রহিমা বেগমকে কল করে বলে, সুমি অজ্ঞান হয়ে গেছে আপনি রুমের বাইরে আসুন। তাদের ডাকে রহিমা রুমের বাইরে আসলে তাকেও গলা চেপে হত্যা করা হয়। পরে পালিয়ে যাওয়ার সময় মোবাইল ফোন, ১৪ হাজার টাকা, সোনা ভেবে ইমিটেশনের তিনটি চেইন ও একটি কানের দুল নিয়ে যায়।

এর আগে, মঙ্গলবার রাতে মিরপুর-২ নম্বর সেকশনের ‘এ’ ব্লকের ২ নম্বর সড়কের ৯ নম্বর বাড়ির চতুর্থ তলা থেকে তাদের দুইজনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সেদিন রাতেই বৃদ্ধার মেয়ে রশিদা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে মামলা করেন। এ ঘটনায় রহিমা বেগমের পালক পুত্র সোহেলকে হেফাজতে নিলেও প্রাথমিক জিজ্ঞাসার পর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়।

ডেইলি বাংলাদেশ/ইএ/আরএইচ