Alexa অপহরণের ১৫ দিনেও মেলেনি মাদরাসাছাত্রীর খোঁজ

অপহরণের ১৫ দিনেও মেলেনি মাদরাসাছাত্রীর খোঁজ

বগুড়া প্রতিনিধি ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৯:১১ ১৭ অক্টোবর ২০১৯  

অপহরণকারী মিল্লাত হোসেন

অপহরণকারী মিল্লাত হোসেন

বগুড়ায় অপহরণে ১৫ দিন পরও মেলেনি অপহৃত মাদরাসাছাত্রী কানিজ ফাতেমা আলিশার খোঁজ। মেয়েকে ফিরে পেতে ব্যাকুল হয়ে আছেন বাবা-মা ও স্বজনরা।

অপহৃত আলিশা সারিয়াকান্দি উপজেলার হরিনাহাট ফুলবাড়ির মুক্তিযোদ্ধা আমজাদ হোসেনের মেয়ে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বগুড়া প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন আমজাদ হোসেন। এ সময় মেয়েকে উদ্ধার ও অপহরণকারীকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়ে গণমাধ্যমের সহায়তা চেয়েছেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে আমজাদ হোসেন বলেন, ২ অক্টোবর সন্ধ্যায় আমার মেয়ে মায়ের সঙ্গে তার চাচার বাসায় যাচ্ছিলো। রহমাননগর পিটিআই মোড়ে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সারিয়াকান্দির ফকিরপাড়ার মো. সুরত জামানের ছলে মিল্লাত হোসেন ও তার সহযোগী মোক্তার হোসেন আমার স্ত্রীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে মেয়েকে অপহরণ করে।

তিনি আরো বলেন, বিষয়টি জানতে পেরে আমি সঙ্গে সঙ্গে সদর থানায় অভিযোগ করি। কিন্তু পুলিশ পূজার অজুহাতে কালক্ষেপণ করে। ২ তারিখের ঘটনা ৬ তারিখে মামলা হিসেবে নথিভূক্ত করে। এরপর মেয়েকে উদ্ধারের জন্য বারবার যোগাযোগ করি। কিন্তু পুলিশ কোনো সাহায্য করেনি। তাই, আমার মেয়েকে ফিরে পেতে গণমাধ্যমের সহায়তা চাই।

আমজাদ হোসেন জানান, কানিজ ফাতেমা আলিশা বগুড়া শহরের জামিয়া ইসলামিয়া খাতুনে জান্নাত (রা.) বালিকা মাদরাসায় ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়াশোনা করতো। মাদরাসায় আসা-যাওয়ার সময় অপহরণকারী মিল্লাত তাকে প্রায়ই ইজটিজিং করতো।

বগুড়া সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান জানান, এটা অপহরণ নয়, প্রেমের ঘটনা। আমরা মামলা নিয়ে একজনকে গ্রেফতার করেছি। ওই কিশোরীকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এআর