অপকর্মে ইচ্ছুক অতিথিদের প্রথমে যেখানে নিতেন পাপিয়া

অপকর্মে ইচ্ছুক অতিথিদের প্রথমে যেখানে নিতেন পাপিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম

প্রকাশিত: ১৬:৩৭ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০   আপডেট: ১৬:৪২ ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০

শামীমা নূর পাপিয়া

শামীমা নূর পাপিয়া

পাহাড়সম অপরাধের শাস্তি থেকে বাঁচতে দেশ ছাড়ার সময় র‌্যাবের হাতে আটক শামীমা নূর পাপিয়ার কাছ থেকে অনেক চাঞ্চল্যকর তথ্য মিলছে। এসব তথ্য পেয়ে হতবাক হচ্ছেন তদন্তে থাকা সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

তদন্তের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকা সূত্র জানায়, গুলশানের ঢাকা ওয়েস্টিন হোটেলের ২৩ তলা বিশিষ্ট ভবনের ২২ তলায় রয়েছে সবচেয়ে ব্যয়বহুল প্রেসিডেনশিয়াল স্যুইট। সেখানে অনেক সুন্দরী তরুণীসহ অতিথিদের নিয়ে বৈঠক করতেন পাপিয়া। এর আগে শামীমা নূর পাপিয়া এসব অতিথিদের প্রথমে হোটেলে নিয়ে লাঞ্চ ও ডিনার করাতেন। বৈঠকের পর পছন্দ অনুযায়ী তরুণীকে নিয়ে গোপন কক্ষে ঢুকতেন অতিথিরা। সে তালিকায় রয়েছে প্রশাসন থেকে শুরু করে বিভিন্ন সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্তারা।

ওই স্যুইটের প্রতিরাতের ভাড়া হিসাবে প্রায় দুই হাজার ডলার পরিশোধ করতেন পাপিয়া। তার সব অপকর্ম ওয়েস্টিন হোটেলের কর্মকর্তারা জানতেন। এছাড়া ভিআইপি অতিথির নাম প্রকাশ করাসহ বেশ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছে পাপিয়াসহ জিজ্ঞাসাবাদে পড়া হোটেল কর্মকর্তারা।

এদিকে পাপিয়াসহ তাদের সহযোগীদের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করা হয়েছে। অস্ত্র, মাদক ও জাল টাকার জন্য পৃথক মামলা হয়েছে। এরইমধ্যে তিনটি মামলা ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের কাছে হস্তান্তর হয়েছে।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এমপি হওয়ার জন্য মোটা অংকের টাকা খরচ করেন পাপিয়া। কিন্তু তার খরচ বিফলে যায়। অনেক প্রভাবশালীদের খুশি রাখতে বিভিন্ন সময় তিনি অনেক উপহার পাঠাতেন।

বিমানবন্দর থানার ওসি বিএম ফরমান আলী বলেন, রিমান্ডে থাকা পাপিয়া চাঞ্চল্যকর তথ্য দিচ্ছেন। প্রাপ্ত তথ্য তদন্ত সংশ্লিষ্ট সবাইকে হতবাক করে দিচ্ছে। তবে যাচাই-বাছাই ছাড়া কোনো কিছু বলা যাবে না। এছাড়া তার অপকর্মের সঙ্গে হোটেলের কেউ বা অন্য কেউ জড়িত রয়েছে কিনা তদন্ত হচ্ছে। এরইমধ্যে পাপিয়ার হাতে প্রতারিত অনেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছেন। এসব নিয়েও তদন্ত চলছে।

ডেইলি বাংলাদেশ/এমকেএ